মাঝপথেই অসুস্থ হয়ে পড়েছিলেন চালক। কন্ডাক্টর, খালাসিরা এসে শুশ্রুষার পরে কিছুটা সুস্থ বোধ করেন তিনি। তার পর ফের ঝুঁকি নিয়ে বাস চালাতে গিয়েই বড় বিপদ ডেকে আনলেন ওই চালক। বাস চালাতে চালাতেই জ্ঞান হারালেন তিনি। যার জেরে নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে উল্টে গেল যাত্রীবাহী বাস। 

শনিবার সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের কানপুরে এই দুর্ঘটনায় বাসের সব যাত্রীই কমবেশি আহত হয়েছেন। তাঁদের মধ্যে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। 

আরও পড়ুন- নাম বদল হচ্ছে না বর্ধমান স্টেশনের, জানিয়ে দিল কেন্দ্রীয় সরকার

স্থানীয় সূত্রে খবর, এ দিন সকালে পশ্চিম মেদিনীপুরের ধূমসাই থেকে ঝাড়গ্রাম যাওয়ার জন্য রওনা দিয়েছিল বাসটি। কিন্তু গোপীবল্লভপুর পৌঁছনোর পরেই বাসের চালক অসুস্থ বোধ করতে থাকেন। রাস্তার পাশে বাস দাঁড় করিয়ে স্টিয়ারিংয়ের উপরেই ঝুঁকে পড়েন তিনি। কন্ডাক্টর এবং খালাসিরা এসে তাঁর চোখেমুখে জল ছিঁটিয়ে প্রাথমিক শুশ্রুষাও করেন। এর পর কিছুটা সুস্থ বোধ করার পর একরকম জোর করেই বাস নিয়ে ফের রওনা দেন চালক। আর এর কিছুক্ষণের মধ্যে ঘটে বিপত্তি। 

অভিযোগ, কানপুর এলাকা দিয়ে বাসটি যখন যাচ্ছিল তখন চলন্ত অবস্থাতেই সংজ্ঞা হারান তিনি। সঙ্গে সঙ্গে নিয়ন্ত্রণ হারায় বাসটি। রাস্তা ছেড়ে পাশের ধানক্ষেতে নেমে উল্টে যায় বাসটি। 

স্থানীয় বাসিন্দারাই প্রথমে ছুটে এসে উদ্ধারকাজে হাত লাগান। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে আসে পুলিশ। আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় তপসিয়া হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। গুরুতর আহত চিকিৎসার জন্য ঝাড়গ্রামে নিয়ে যাওয়া হয়। অসুস্থ বাসচালকও হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। চিকিৎসকদের ধারণা, হৃদযন্ত্রের সমস্যা থেকেই অসুস্থ হয়ে পড়েন ওই বাসচালক।