তৃনাঞ্জন চট্টোপাধ্যায়-পশ্চিম বর্ধমানঃ- আসানসোলের কয়লা ব্যবসায়ীর বাড়িতে সিবিআই হানা। উল্লেখ্য, রাজ্যের অনুমতি ছাড়াই  কয়লা পাচার কাণ্ডে তল্লাশি চালাতে পারবে সিবিআই। তাই কোর্টের অনুমতি মেলায় গিয়েই বৃহস্পতিবার কয়লা ব্যবসায়ীর হানা দেয় কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। 

আরও পড়ুন, 'দিদিকে উচ্ছেদ নয়, বাংলায় পরিবর্তন আনাই উদ্দেশ্য', জোট ছাড়াও একাধিক জট ছাড়ালেন শাহ 

 

 

বৃহস্পতিবার সাতসকালেই আসানসোলের একসময়ের কয়লা ব্যবসায়ীর বাড়িতে এসে পৌছয় চারচাকা গাড়ি। গভর্মেন্ট অফ ইন্ডিয়া, ই সি এল অন ডিউটি, মুগমা এরিয়া লেখা গাড়ি থেকে নামলেন চারজন। সোজা ঢুকে গেলেন উত্তর আসানসোলের কন্যাপুর ফাঁড়ির উল্টোদিকে জয়দেব মন্ডলের বাড়িতে। প্রায় তিন ঘন্টা ঘরের ভেতর তল্লাশি করলেন বলে সূত্রের খবর। বাড়ির বেশ কিছু মানুষকে জিজ্ঞাসাবাদ করেছেন বলেও জানা গেছে। যদিও জয়দেব বাবু বা তার পরিবারের কেউ ছিলেন না বলে সূত্রের খবর। অবশেষে বেরিয়ে গেলেন তারা। সাংবাদিকদের মুখোমুখি হাওয়া তো দূরের কথা একপ্রকার জোর করিয়ে এড়িয়ে চলে গেলেন।

 

 

আরও পড়ুন, রাজ্য়ে চিকিৎসক নিয়োগে অস্বচ্ছতা, মমতার বিরদ্ধে 'ডক্টরস' ফোরামে দুর্নীতির অভিযোগ মালব্যর 

 

 

সারা এলাকায় সিবিআই হানার রব। এলাকার মানুষের প্রশ্ন কয়লাখনি অর্থাৎ ই সি এল এর গাড়িতে কারা এলেন, কেন ই বা এলেন, কি বা করলেন, কিছু ই জানা গেল না। প্রসঙ্গত, কয়লা পাচার কাণ্ডে তল্লাশি চালাতে গেলে আর লাগবে না রাজ্যের অনুমতি।  সিবিআইকে স্বস্তি দিয়ে রায় শুনিয়েছে হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চ। আদালত জানিয়েছে, রাজ্যের অনুমতি ছাড়াই এখন থেকে  কয়লা পাচার কাণ্ডে তল্লাশি চালাতে পারবে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা। আদালত আরও জানিয়েছে, অভিযুক্ত অনুপ মাঝি ওরফে লালা-সহ বাকি অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে তদন্ত চালাতে পারবে সিবিআই।