সরস্বতী পুজোতেই রাজ্যের শিক্ষকদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণ করল রাজ্য় সরকার। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় ঘোষণা করে দিলেন, এবার থেকে রাজ্যের সব শিক্ষকই নিজেদের জেলায় চাকরি করার সুযোগ পাবেন। মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছেন, এর ফলে শান্তিতে চাকরি করতে পারবেন শিক্ষকরা। পড়ানোর দিকে আরও মনযোগ দিতে পারবেন তাঁরা।

যে সমস্ত শিক্ষকদের অন্যান্য জেলায় গিয়ে চাকরি করতে হচ্ছিল, এতদিন তাঁদের পারস্পরিক সম্মতির ভিত্তিতে স্কুল বদল বা মিউচুয়াল ট্রান্সফার-এর উপর নির্ভর করতে হতো। এ নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই ক্ষোভ জানিয়ে আসছিল শিক্ষকদের বিভিন্ন সংগঠন। অবশেষে সেই দাবিকে স্বীকৃতি দিল রাজ্য সরকার। 

এ দিন টুইটারে নিজেই এ খবর জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে তিনি লিখেছেন, 'এই ঐতিহাসিক সিদ্ধান্তের ফলে শিক্ষকরা নিজেদের পরিবারের যত্ন নিতে পারবেন এবং নিজেদের কাজে পুরোপুরি মনোনিবেশ করে দেশ গঠনের কাজ করতে পারবেন। আমরা আমাদের শিক্ষকদের জন্য গর্বিত। ছাত্রছাত্রীদের গড়ে তুলতে এবং আগামী দিনের নেতা তৈরি করে তাঁরাই দেশ গঠনে বিরাট অবদান রাখেন। শিক্ষকরাই হলেন আমাদের প্রকৃত অভিভাবক।'

 

 

 

 

সামনেই পুরসভা নির্বাচন। তার উপর রাজ্যের বিভিন্ন শিক্ষক সংগঠন এবং স্কুলগুলিতে প্রভাব বিস্তার করতে চাইছে বিজেপি। এই অবস্থায় শিক্ষকদের মন জয় করতেই রাজ্য সরকার তাঁদের দীর্ঘদিনের দাবি পূরণের পথে হাঁটল বলে মনে করা হচ্ছে।