একুশের বিধানসভা ভোটের আগে ফের ভাঙন কংগ্রেসে। এবার দল ছাড়লেন উত্তর ২৪ পরগণার বাদুড়িয়ার বিধায়ক কাজি আব্দুর রহিম। তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন তিনি। স্রেফ বিধায়ক একা নন, সমাজের বিভিন্ন পেশার আরও অনেকে চলে এলেন রাজ্যের শাসকদলের ছত্রছায়ায়। 

আরও পড়ুন: 'ভাত-ডাল-পটলভাজা খেয়ে ভাট বকলেন', শাহ-সফর ঘিরে বিস্ফোরক নুসরত

তপসিয়ার তৃণমূল ভবনে বাদুড়িয়ার বিধায়ক-সহ বাকীদের হাতে দলের পতাকা তুলে দেন পুর ও নগরোন্নয়বনমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। সাংবাদিক সম্মেলনে হাজির ছিলেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, সুখেন্দুশেখর রায়-সহ আরও অনেকে। কেন তৃণমূল কংগ্রেসে যোগ দিলেন? বিধায়ক কাজি আব্দুর রহিমের জবাব, 'দেশের মানুষকে নতুন করে স্বপ্ন দেখিয়েছিলেন নরেন্দ্র মোদী। কিন্তু একটিও কথা রাখেননি তিনি। সাধারণ মানুষকে কঠিন জায়গায় নিয়ে গিয়েছেন তিনি। বাংলার শান্তি- সম্প্রীতি নষ্ট করার চেষ্টা চালাচ্ছে বিজেপি। সেক্ষেত্রে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ই একমাত্র পথ।' তৃণমূল কংগ্রেসের যোগ দিলেন বিজেপি-এর মহিলা মোর্চার সহ সভানেত্রী মৌমিতা বসু চক্রবর্তী অধ্যাপক শান্তনু প্রামাণিক, অনিন্দিতা দাস কবীর-সহ একাধিক অবসরপ্রাপ্ত পুলিশ আধিকারিকও।

আরও পড়ুন: মান্থলি-সিজন টিকিটের মেয়াদ বাড়ছে, বুধবার থেকে মিলবে আরও বেশি লোকাল ট্রেনও

উল্লেখ্য, দু'দিনের বাংলার সফর সেরে শুক্রবার দিল্লি ফিরে গিয়েছেন কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। আগামী বিধানসভা এ রাজ্য থেক দুশোটিরও বেশি আসনে জয়ের লক্ষ্যমাত্রা বেঁধে দিয়ে গিয়েছেন তিনি। কংগ্রেস বিধায়ক দলের যোগ দেওয়ার পর তৃণমূল মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, 'বিজেপি-এর অপপ্রচারের বিরুদ্ধে গর্জে ওঠেছেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তাঁর আদর্শকে সামনে রেখে এগিয়ে যেতে চাইছেন অনেকেই। এখানে মাটি পাওয়া যাবে না, বাংলার সাধারণ মানুষ মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের লড়াইকেই কুর্নিশ করছেন।'