হুমকি দেওয়া হচ্ছিল। বউমাকে কটুক্তির প্রতিবাদ করায় শেষপর্যন্ত কুপিয়ে খুনের চেষ্টা করা হল এক প্রৌঢ়কে! গুরুতর আহত অবস্থায় তিনি ভর্তি হাসপাতালে। ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে পুরাতন মালদহে। অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

আক্রান্তের নাম রাম পাল। বাড়ি, পুরাতন মালদহের পালপাড়ায়।  গত কয়েকদিন ধরেই রামের ভাইপো-র স্ত্রীকে রঞ্জন দাস নামে এলাকারই এক যুবক কটুক্তি করছিল বলে অভিযোগ। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, বউমাকে কটুক্তির প্রতিবাদ করেছিলেন রাম। এই নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে গন্ডগোল চলছিল। এমনকী, অভিযুক্ত রঞ্জন দাস ও তার পরিবারের লোকেরা আক্রান্তের পরিবারের লোকেদের 'দেখে নেওয়া'র  হুমকিও দেয় বলে অভিযোগ। 

আরও পড়ুন: দলের সাংসদের বিরুদ্ধেই ক্ষোভ, পুরুলিয়ায় বিজেপি ছেড়ে তৃণমূলে যোগের হিড়িক

জানা গিয়েছে, দুই পরিবারের মধ্যে বিবাদ মিটিয়ে দেওয়ার উদ্যোগ নেন স্থানীয় কাউন্সিলর। আলোচনার জন্য দু'পক্ষকেই ডেকেছিলেন তিনি। রবিবার রাতে যখন কাউন্সিলের সঙ্গে বৈঠকের পর যখন গ্রামে ফেরেন রাম পাল, তখন ধারালো অস্ত্র নিয়ে  তাঁর উপর চড়াও হয় রঞ্জন দাস। অভিযোগ তেমনই। রাস্তায় ফেলে এলোপাথারি কোপানো হয় ওই প্রৌঢ়়কে। গুরুতর আহত অবস্থায় রামকে উদ্ধার করে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে। কিন্তু অবস্থা গুরুতর হওয়ায় তাঁকে কলকাতায় পাঠিয়ে দেওয়া হয়। এদিকে এই ঘটনার পর থানার গিয়ে আত্মসমপর্ণ করে অভিযুক্ত। তাকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।