রাজ্য়ে কনস্টেবলের পরীক্ষা দিতে এসে প্রতারণা। লেকটাউনে কনস্টেবলের পরীক্ষা দিতে এসে পুলিশের জালে ধরা পড়ল দুই ভুয়ো পরীক্ষার্থী।  অপরদিকে শিলিগুড়িতে  কনস্টেবল পদে পরীক্ষায় সময়  মোবাইল ফোন থেকে নকল করতে গিয়ে গ্রেফতার হল আরও একজন।

আরও পড়ুন, 'ফ্রেশ' আটার প্য়াকেট থেকে উদ্ধার বিপুল পরিমাণ মাদক, গ্রেফতার ১


পুলিশি সূত্রের খবর, লেকটাউনের পাতিপুকুর তিন নম্বর পল্লীশ্রী এবং বাঙ্গুর বয়স স্কুল এই স্কুলে কনস্টেবল নিয়োগ এর পরীক্ষা চলছিল সেই সময় দেখা যায় যে পরীক্ষার্থী সে পরীক্ষা হলে পরীক্ষা না দিয়ে অন্য দুই ব্যক্তি তারা পরীক্ষা দিচ্ছে এবং সমস্ত কাগজপত্র খতিয়ে দেখে আইডেন্টি কার্ড দেখা হয় তখন দেখা যায় যে পরীক্ষার্থী তাঁর সঙ্গে কোনও রকম এই ব্যক্তিদের মুখের মিল নেই। এরপরে লেকটাউন থানার পুলিশ তাদের দুজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদের পরে ভুয়ো দুই পরীক্ষার্থীকে গ্রেপ্তার করা হয়। আজ সোমবার ধৃতদেরকে বিধাননগর আদালতে তোলা হবে।

আরও পড়ুন, বক্সার ছাপোষা ট্যুর গাইড-এ মজলেন হ্যারি পটার খ্যাত রাউলিং, আসছে নতুন উপন্যাস

অপরদিকে,  কনস্টেবল পদে পরীক্ষায় সময়  মোবাইল ফোন থেকে নকল করার অভিযোগে এক যুবককে গ্রেফতার করল প্রধান নগর থানার পুলিশ। ওই যুবকের নাম বিশ্বজিৎ বর্মন। সে কোচবিহারের বাসিন্দা। ধৃত ওই যুবককে আজ শিলিগুড়ি আদালতে তোলা হয়। পুরো ঘটনাটি খতিয়ে দেখতে প্রধান নগর থানার পুলিশ। জানা গিয়েছে, গতকাল পশ্চিমবঙ্গ পুলিশ কনস্টেবল পদে পরীক্ষা ছিল। বেশ কয়েকটি স্কুলের পাশাপাশি শিলিগুড়ির বিদ্যাসাগর হিন্দি হাই স্কুলে পরীক্ষার সিট পরেছিল। ওই পরীক্ষা কেন্দ্রের পরীক্ষার্থী বিশ্বজিৎ বর্মন পরীক্ষা মোবাইল দেখে নকল করার সময় হাতেনাতে ধড়া পড়ে। ঘটনার পরেই পরীক্ষকদের তরফে প্রধাননগর থানায় খবর দেওয়া হয়। এরপরেই পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে বিশ্বজিৎ বর্মনকে গ্রেফতার করা হয়। পুরো ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে প্রধাননগর থানার পুলিশ।