ঝামেলা কোন বাড়িতে হয় না। কিন্তু সেই ঝামেলার জেরেই কাটা গেল ননদের কান। অভিযোগের তির বৌদির দিকে। ঘটনাস্থল  উত্তর দিনাজপুর জেলার  ইসলামপুর থানার অন্তর্গত আখডিমাটি খুন্তি গ্রাম পঞ্চায়েতের ভাটপোখর গ্রাম।

 ঝাড়ু দেওয়া নিয়ে প্রায়শই ঝামেলা বাঁধত ফারাতুন নেসার  সঙ্গে  তার  শাশুড়ির।  বুধবারও সেই নিয়মের অন্যথা হয়নি। কথা কাটাকাটি থেকে শুরু হয় দুজনের মধ্যে মারামারি।  ঝামেলা থামাতে ময়দানে নামে ননদ নাজমা খাতুন। কিন্তু রেগে  থাকা  বৌদি  কামড়ে দিয়ে  কেটে নেয় তার কান, এমনটাই অভিযোগ নাজমার। এই ঘটনায় এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়ায়। পরিবারের সদস্যরা নাজমাকে নিয়ে হাজির হয় ইসলামপুর মহকুমা হাসপাতালে। সেখানে চিকিৎসা শুরু হয় তার।

কামড়ে ননদের কান কাটার অভিযোগ অবশ্য অস্বীকার করেছেন বৌদি ফারাতুন নেসা। উল্টে তার অভিযোগ শ্বশুর, শাশুড়ি নিয়মিত তাকে মারধর করে। বুধবার বাঁশ দিয়ে মেরে তার মাখা ফাটিয়ে দেওয়া হয়। ননদ-বৌদির ঝামেলর খবর পেয়েই ঘটনাস্থলে আসে ইসলামপুর থানার পুলিশ। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে  তারা।