মাঠে লাঙল দিতে গিয়ে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে মৃত্যু হল এক কৃষকের। মৃতদেহ নিয়ে গিয়ে ভাঙচুর করা হল বিদ্যুৎ দপ্তরের অফিস এবং সেইসঙ্গে বিক্ষোভ দেখালো উত্তেজিত জনতা। এলাকায় চরম উত্তেজনা। ঘটনাস্থলে কৃষ্ণনগর কোতোয়ালি থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন, কলকাতা সহ জেলার বিভিন্ন এলাকায় ফিরল বিদ্যুৎ, মঙ্গলবারের মধ্য়ে বাকি কাজ শেষ হবার আশ্বাস সংস্থার

 সূত্রের খবর, নদীয়ার কোতোয়ালি থানার বাগদিয়া গ্রামের বাসিন্দা ৪২ বছরের কাজী শেখ। রবিবার সকালে চাষের জমিতে লাঙল দিতে গেলে মাঠের মধ্যে ছিঁড়ে পড়ে থাকা বৈদ্যুতিক তাদের তিনি বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হন। আরফানের জেরে ছেড়ে থাকা বৈদ্যুতিক তার বিদ্যুৎ দপ্তর এখনও মেরামত না করার কারণে জমির মধ্যে পড়েছিল ওই তারটি এবং সেই তারের মধ্যে দিয়ে বিদ্যুৎ প্রবাহিত হচ্ছিল।ফলে ওই তারে বিদ্যুৎস্পৃষ্ট হয়ে ঘটনাস্থলেই মৃত্যু হয়। 

আরও পড়ুন, করোনা রুখতে সতর্কতা, কলকাতা বিমানবন্দরে উড়ান পিছোতে আর্জি রাজ্য়ের

অপরদিকে, খবর পেয়েই এলাকার মানুষ দিগনগর বিদ্যুৎ দপ্তর এর অফিসে এসে ব্যাপক ভাঙচুর চালায় তারা। এরপরই ঘটনাস্থলে আসে কোতোয়ালি থানার পুলিশ। পুলিশ এসে মৃতদেহটি উদ্ধার করে শক্তিনগর জেলা হাসপাতালে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। এর পাশাপাশি বিক্ষোভকারীদের সঙ্গে কথা বলে প্রশাসন এবং বিদ্যুৎ দপ্তরের তরফ থেকে সঠিক তদন্তের আশ্বাস দিলে বিক্ষোভ তুলে নেয় তারা।

আরও পড়ুন, আমফান নিয়ে অতিরঞ্জিত হিসেব দেবেন না,ফের মুখ্যমন্ত্রীকে আক্রমণ রাজ্য়পালের