হুগলির কোন্নগরের পর এবার নদিয়ার শান্তিপুর। অজানা প্রাণীর আতঙ্কে কাঁটা গোটা এলাকা। শেষ পর্যন্ত প্রাণীটিকে চিহ্নিত করতে দল বেঁধে রাত পাহারাও শুরু হয়েছে। যদিও প্রাণীটির পায়ের ছাপ দেখে বন দফতরের আধিকারিকদের দাবি, সেটি খুব হিংস্র কোনও প্রাণী নয়। 

অজানা জন্তুকে নিয়ে এই আতঙ্ক ছড়িয়েছে নদিয়ার শান্তিপুরের বেলঘড়িয়া এক নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের ফুলিয়াপাড়া এবং চটকাতলা সহ একাধিক এলাকায়। স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি,  বেশ কিছুদিন ধরে গভীর রাতে একটি অজানা প্রাণীর ডাক শুনতে পাচ্ছেন তাঁরা। গ্রামবাসীদের আরও দাবি, এই প্রাণীটির উপস্থিতি টের পাওয়ার পর থেকেই প্রতিদিন রাতে  গ্রামের বেশ কিছু কুকুর এবং কুকুরের বাচ্চা উধাও হয়ে যাচ্ছে। এর পাশাপাশি একাধিক জায়গায় ওই প্রাণীটির পায়ের ছাপও দেখা গিয়েছে। সবমিলিয়ে আতঙ্কে ঘুম উড়েছে গ্রামবাসীদের। 

আরও পড়ুন- কলকাতার কাছেই বাঘের আতঙ্ক, কোন্নগরে ভয় ধরাল সিসিটিভি-র ছবি

খবর পেয়ে এ দিন এলাকা পরিদর্শনে আসেন বন দফতরের কর্মীরা।  বিষয়টি ঊর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষকে জানানো হবে বলে তাঁরা জানিয়েছেন। তবে আতঙ্কিত না হওয়ার জন্যই গ্রামবাসীদের পরামর্শ দিয়েছেন বনকর্মীরা। যদিও এখনও কেউই প্রাণীটিকে দেখেননি। ফলে সেটির বর্ণনাও বনকর্মীদের কাছে কেউ দিতে পারেননি। তাই প্রাণীটিকে দেখলে সেটির ছবি তুলে রাখার জন্য গ্রামবাসীদের পরামর্শ দিয়েছেন বনকর্মীরা। তবে প্রাণীটি হায়না হতে পারে বলেও মনে করছে বন দফতর।