Asianet News BanglaAsianet News Bangla

রোগীকে রেফার করার শাস্তি, চিকিৎসক-নার্সদের বেদম পিটিয়ে শ্রীঘরে পরিবারের ৫ সদস্য

অতিমারী আবহে রোগী রেফারকে কেন্দ্র করে তুলকালাম। চিকিৎসক, নার্সকে রোগীর পরিবারের সদস্যদের পেটানোর কান্ডে গ্রেপ্তার ৫ জনের জেল হেফাজত।
 

Five members of the patient's family have been arrested for allegedly beating up  doctor and nurse RTB
Author
Kolkata, First Published Jul 25, 2021, 5:29 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp


অতিমারী আবহে রোগী রেফার কে কেন্দ্র করে তুলকালাম। চিকিৎসক, নার্সকে রোগীর পরিবারের সদস্যদের পেটানোর ঘটনায় গ্রেপ্তার ৫ জনের জেল হেফাজত।   মহামারী আবহে ফ্রন্টলাইনে থেকে প্রতিমুহূর্তে সাধারণ মানুষকে পরিষেবা দিয়ে আসছেন চিকিৎসক থেকে শুরু করে নার্স ও স্বাস্থ্যকর্মীরা। আর এদিকে রোগীকে সুচিকিৎসার জন্য বড় হাসপাতালে রেফার করাকে কেন্দ্র করে, ফ্রন্টলাইন ওয়ারিয়ার চিকিৎসক ও নার্সকে  রোগীর বাড়ির লোকেরা বেদম পেটাল।ঘটনায় রবিবার ব্যাপক উত্তেজনা ছড়িয়েছে  মুর্শিদাবাদের শক্তিপুর এলাকায়। 

আরও পড়ুন, Pegasus ইস্যুতে তৃণমূলের যুবরাজের পাশে Congress, মমতার দিল্লি পাড়ির আগে অভিষেককে নিয়ে টুইট


ঘটনার পরই পুলিশ এসে পাঁচজন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে। স্থানীয় সূত্রে জানা যায়,মুর্শিদা বেগম নামে এক মহিলা  হাসপাতালে ভরতি হন। তাঁর চিকিৎসাও শুরু হয়। শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যায় ওই রোগীর উন্নত চিকিৎসার দরকার ছিল। ফলে প্রাথমিকভাবে তাঁকে ইঞ্জেকশন দিয়ে ও ইসিজি করার পর মুর্শিদাবাদ মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে স্থানান্তরিত করার পরামর্শ দেওয়া হয় এদিন। খবর দেওয়া হয় ওই রোগীর আত্মীয়দের।  ওই রোগীর আত্মীয়রা হাসপাতালে পৌঁছন। রোগী অন্যত্র রেফার করা হয়েছে শুনে উত্তেজিত হয়ে পড়েন। রোগীর আত্মীয়রা গালিগালাজ করতে শুরু করে। কিছু বুঝে ওঠার আগেই চিকিৎসক এবং নার্সকে মারধর করা হয়। কর্তব্যরত চিকিৎসক অনুপম মণ্ডলের চশমা ভেঙে দেওয়া হয়। ওই চিকিৎসককে বাঁচাতে আসা নার্স রাধিকা দে’কেও ব্যাপক মারধর করা হয়। তাঁকে ওই হাসপাতালেই ভরতি করা হয়েছে। 

আরও পড়ুন, Jawhar Sircar: রাজ্যসভায় প্রাক্তন আমলা জহর সরকারকে মনোনীত করল তৃণমূল

এই ঘটনায় তীব্র উত্তেজনা ছড়ায় শক্তিপুর হাসপাতালে। আহত চিকিৎসক-নার্স অভিযুক্তদের শাস্তির দাবি তুলেছেন রোগীর পরিবারের লোকজন। পালটা রোগীর আত্মীয়দের গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব অন্যান্য নার্স ও চিকিৎসকরা। শক্তিপুর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশ সেই অভিযোগের ভিত্তিতে ৫ জনকে গ্রেপ্তার করেছে। নিগৃহীত চিকিৎসক অনুপম মন্ডল বলেন,"এইভাবে যদি রোগীর চিকিৎসা করতে গিয়ে রোগীর পরিবারের সদস্যদের হাতে চিকিৎসক ও নার্সের মারধর খেতে হয় তাহলে আমাদের চিকিৎসাব্যবস্থা চালানোই দুষ্কর হয়ে উঠবে প্রশাসনের উচিত কঠোর ব্যবস্থা নেওয়া"। এদিনের শেষ পাওয়া খবরে জানা যায় ধৃত ৫ জনকে বহরমপুরে বিশেষ আদালতে তোলা হলে বিচারক তাদের জামিনের আবেদন নাকচ করে দিয়ে জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন।

আরও পড়ুন, ভাইরাসের ভয় নেই তেমন এখানে, ঘুরে আসুন ভুটানে  

আরও দেখুন, মাছ ধরতে ভালবাসেন, বেরিয়ে পড়ুন কলকাতার কাছেই এই ঠিকানায়  

আরও পড়ুন, রাজ্য়ের সর্বনিম্ন সংক্রমণ এই জেলায়, বৃষ্টিতে হারাতেই পারেন পুরুলিয়ার পাহাড়ে

আরও দেখুন, বৃষ্টিতে বিরিয়ানি থেকে তন্দুরি, রইল কলকাতার সেরা খাবারের ঠিকানার হদিশ  

আরও দেখুন, কলকাতার কাছেই সেরা ৫ ঘুরতে যাওয়ার জায়গা, থাকল ছবি সহ ঠিকানা 

আরও পড়ুন, বনগাঁ লোকাল নয়, জাপানে ঠেলা মেরে ট্রেনে তোলে প্রোফেশনাল পুশার, রইল পৃথিবীর আজব কাজের হদিস 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios