Asianet News BanglaAsianet News Bangla

পৃথক কোচ কামতাপুর রাজ্যকে জে পি নাড্ডার সমর্থন? জীবন সিং-এর দাবি ঘিরে চাঞ্চল্য

স্বাধীনতা দিবসের প্রাক্কালে ফের ভিডিও বার্তায় পৃথক কোচ কামতাপুর রাজ্যের দাবি করলেন কে এল ও দলের প্রধান জীবন সিংহ। তিনি দাবি করেছেন, তাঁর পৃথক রাজ্যের দাবিকে সমর্থন জানিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জেপি নাড্ডা ও আরএসএস।

Klo chief jeevan singh viral video demanding for separate kamtapur state to PM Modi ANBSS
Author
Kolkata, First Published Aug 14, 2022, 10:06 AM IST

ভারতের ৭৫ তম স্বাধীনতা দিবসের আগে বাংলার অন্দরে সীমানা বিভাজন নিয়ে ফের রাজনৈতিক দোলাচল। পৃথক কোচ কামতাপুরকে আলাদা রাজ্য হিসেবে চেয়ে স্বয়ং প্রধানমন্ত্রীর কাছে দাবি জানালেন কে এল ও প্রধান জীবন সিং।

সেই ভিডিও বার্তা ভাইরাল হওয়ায় চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে। উত্তরবঙ্গের ঘন অরণ্যে একাধিক সশস্ত্র নিরাপত্তারক্ষী বেষ্টিত কে এল ও প্রধান জীবন সিং-এর প্রায় পাঁচ মিনিটের একটি ভিডিও বার্তা ভাইরাল হয়েছে। সেখানে জীবন সিং পরিষ্কারভাবে জানাচ্ছেন যে, তাদের যে পৃথক কোচ কামতাপুর রাজ্যের দাবি রয়েছে, সেই দাবিকে সমর্থন জানিয়েছেন বিজেপির সর্বভারতীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা এবং আরএসএস দল। এই দুই জোরালো সমর্থন নিয়ে রাজ্য রাজনীতির অন্দরে শুরু হয়ে গিয়েছে তুমুল বিতর্ক।

ভিডিও-র বক্তব্যে জীবন সিং হাতজোড় করে ভারতের রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদি মুর্মু ও প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে আবেদন করেছেন যে, আজাদী কা অমৃত মহোৎসব উপলক্ষে তাঁদের সেই দাবি পূরণ করে মুক্তি দেওয়া হোক। "আমরা ভারতের মাটিতে বাঁচতে চাই। রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে রাজ্য ফিরিয়ে দেওয়ার দাবি জানাচ্ছি। আজাদির এই অমৃত মহোৎসবের আনন্দ আমরা এভাবেই নিতে চাই ৷" ভিডিও বার্তায় দাবি করেছেন জীবন সিং। বলা বাহুল্য, রাজ্য রাজনীতিতে এ নিয়ে যথেষ্ট শোরগোল পড়ে গিয়েছে। 

অপারেশন ফ্ল্যাশ আউটের পর ৩০ বছর ধরে পালিয়ে থাকা জীবন সিং-য়ের আক্ষেপ, “আমরা এখনও ভাষার স্বীকৃতি পেলাম না। ভারত সরকার কোচ কামতাপুর জনগণের দুঃখদুর্দশা বোঝা তো দূরের কথা, রাজনৈতিক আশা আকাঙ্ক্ষাও পূরণ করেনি। কোচ কামতাপুরের সংগ্রামী জনগণের ওপর চালালো ‘অপারেশন কামতাপুর’, ‘অপারেশন ভুটান ফ্ল্যাশ আউট’-ও চালানো হয়। আমরাও চাই এই মাটিতে বাঁচতে। আজ কোচ কামরাপুরের মানুষ ঐক্যবদ্ধ হয়েছেন পৃথক রাজ্যের জন্য। সঙ্গে বিধায়ক ও সাংসদরাও জোটবদ্ধ হয়েছেন।”

জীবন সিংয়ের এই ভিডিও বার্তা নিয়ে তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অভিজিৎ দে ভৌমিক-এর মন্তব্য, কে এল ও প্রধান জীবন সিং আসলে বিজেপির মুখপাত্র হিসেবে এই কথাগুলি বলছেন। যদিও এই  বিষয় নিয়ে বিশেষ কোনও কিছুই বলতে চাননি বিজেপির জেলা সভাপতি সুকুমার রায়। তিনি বলেন, “উত্তরবঙ্গ বঞ্চিত রয়েছে, সেই বিষয়টি আমরা বারবার তুলে ধরেছি। বাকি যা সিদ্ধান্ত সেটা আমাদের রাজ্য ও কেন্দ্রীয় নেতৃত্ব যা সিদ্ধান্ত নেবে, সেটাই আমরা মেনে চলব।”


স্বাধীনতা দিবসের ৭৫ বছর পূর্তির ২ দিন আগে ফের একটি ভিডিও ভাইরাল হল কে এল ও প্রধান জীবন সিংয়ের। ভিডিও বার্তায় জীবন সিং পরিষ্কারভাবে বলেছেন, বর্তমান আমাদের জায়গায় আমাদের ভাষা সংস্কৃতি সেগুলো হারিয়ে যাচ্ছে। নিজেদের জায়গায় আমরা পরাধীন ভাবে বসবাস করছি। ইতিমধ্যে আমাদের যে দাবি রয়েছে সেই দাবিকে বিজেপির বিধায়ক, সাংসদরা সমর্থন জানিয়েছেন। একই সাথে তিনি বলেন, আমাদের দাবিকে বিজেপির কেন্দ্রীয় সভাপতি জে পি নাড্ডা সমর্থন জানিয়েছেন। তাই ভারতের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর কাছে হাতজোড় করে আবেদন করব আজাদি কা অমৃত মহোৎসব উপলক্ষে আমাদের গ্রেটার কোচবিহার রাজ্য অথবা কোচ কামতাপুর রাজ্য দিয়ে মুক্তি দেওয়া হোক।

 

আরও পড়ুন-

ফের এসটিএফের জালে আরও ১ কেএলও জঙ্গি, শিলিগুড়ির ফাঁসি দেওয়া এলাকায় অপরাধীর পর্দাফাঁস

কেএলও জঙ্গি সন্দেহে এসটিএফ-র জালে ১, চাঞ্চল্য শিলিগুড়িতে

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে বহিরাগত বলার অভিযোগ, KLO নেতার বিরুদ্ধে UAPA ধারায় মামলা দায়ের

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios