দ্বৈপায়ন লালা, মালদহ:  রক্ষকই ভক্ষক! মালদহে এবার পুলিশ লাইনেই 'যৌন নিগ্রহে'র শিকার হলেন মহিলা কনস্টেবল। ঘটনার পর মানসিক অবসাদে নির্যাতিতা আত্মহত্যারও চেষ্টা করেন জানা গিয়েছে। অভিযুক্ত পেশায় হোমগার্ড। বিভাগীয় তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। 

আরও পড়ুন: ছেলের বিয়ের পরেই সংসারে 'অশান্তি', একই দড়িতে গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা দম্পতির

পুলিশ সূত্রে খবর, নির্যাতিতা ওই মহিলা কনস্টেবলের বাড়ি কোচবিহারে। রবিবার রাতে ডিউটি সেরে পুলিশ লাইনে নিজের ঘরে বিশ্রাম নিচ্ছিলেন তিনি। সেই সময়ে ওই পুলিশ লাইনে কর্মরত এক হোমগার্ড মহিলার সহকর্মী ঘুরে ঢুকে পড়েন বলে অভিযোগ। নির্যাতিতার দাবি, তাঁকে যৌন নিগ্রহ করেছেন ওই হোমগার্ড। ঘটনার এতটাই মানসিকভাবে ভেঙে পড়েছিলেন যে, ওই মহিলা কনস্টেবল আত্মহত্যারও চেষ্টা করেন। অন্য পুলিশকর্মীরা বিষয়টি টের পেয়ে যাওয়াপুলি কোনও অঘটন ঘটেনি। কীভাবে এমন কাণ্ড ঘটল? হইচই পড়ে গিয়েছে জেলার পুলিশমহলে।

আরও পড়ুন: বাঘের হানায় মৃত্যুমিছিল, সুন্দরবনে বেআইনি প্রবেশ রুখতে কড়া নজরদারি বনদপ্তরের

মালদহের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার হাসান মেহেদি রহমান জানিয়েছেন, 'এখনও পর্যন্ত কোনও লিখিত অভিযোগ দায়ের হয়নি। ডিএসপি পদমর্যাদার পুলিশ আধিকারিকদের নেতৃত্বে বিভাগীয় তদন্ত চলছে। তদন্তে দোষ প্রমাণ হলে, অভিযুক্ত হোমগার্ডের বিরুদ্ধে কড়া ব্যবস্থা নেওয়া হবে। অবসাদ কাটাতে নির্যাতিতার কাউন্সেলিং-এর  ব্যবস্থা করা হয়েছে।'