ছোট একটাকার কয়েন কিন্তু অচল নয়। লকডাউনের সময়ে ওই কয়েনের বিনিময়ে পেয়ে যাবেন আনাজপাতি, এমনকী মুদিখানা সামগ্রীও। অভিনব বাজার বসছে হুগলির পাণ্ডুয়ার বৈচিগ্রামে। স্থানীয় কয়েকজন যুবকের উদ্যোগে উপকৃত হচ্ছেন বহু মানুষ।

আরও পড়ুন: যা নেবে, তাই 'পঞ্চাশ টাকা', করোনা রুখতে লকডাউনে নয়া উদ্যোগ

পরিস্থিতি বিচার করে কিছু ক্ষেত্রে ছাড় দিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকার। কিন্তু লকডাউনের দুর্ভোগ থেকে এখনই নিস্তার মিলছে না। তৃতীয় দফায় মেয়াদ বাড়ল আরও দুই সপ্তাহ। এই কঠিন সময়ে সাধারণ মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন পাণ্ডুয়া বৈচিগ্রামের কয়েকজন যুবক। চাঁদা তুলে এলাকায় অভিনব এক বাজার বসিয়েছেন তাঁরা। এই বাজারে শুধুমাত্র ছোট কয়েনের বিনিময়েই চলছে কেনা-বেচা। মুখে মুখে খবর ছড়িয়ে পড়েছে।  মঙ্গলবার, বৃহস্পতি ও শনিবার ভিড়ও হচ্ছে ভালোই। 


 

আরও পড়ুন: করোনা নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় ভিডিও পোস্ট, পুলিশের নজরে বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি

আরও পড়ুন: করোনা সংক্রমণের জের, বীরভূমে কোরায়েন্টাইনে সিভিক ভলান্টিয়াররাও

ছোট একটাকার কয়েন কেন? অন্যতম উদ্যোক্তা প্রীতম মুখোপাধ্যায় জানিয়েছেন, গ্রামাঞ্চলে ছোট এক টাকার কয়েন কার্যত অচল, নিতে চান না অনেকেই। অথচ রিজার্ভ ব্যাঙ্কের কিন্তু বিধিনিষেধ নেই। গ্রামবাসীদের তাঁরা বোঝাতে চান, ছোট একটাকার কয়েনেরও দাম আছে এবং সেটি সম্পূর্ণ সচল। শুধু তাই নয়, এই অভিনব বাজারে কাউকে বিনা পয়সা সাহায্য করা হচ্ছে না, পয়সা দিয়েই আনাজপাতি ও মুদিখানা সামগ্রী কিনছেন সকলেই। সে বার্তাও দিয়েছেন তিনি।