কাজকর্ম লাঠে উঠেছে, রোজগার বন্ধ। কতদিনই বা আর ভিনরাজ্যে পড়ে থাকবেন! লকডাউনে মাঝে পায়ে হেঁটে ফিরে এসেছিলেন বাড়িতে। শেষপর্যন্ত মারা গেলেন এক পরিযায়ী শ্রমিক। ঘটনায় তীব্র চাঞ্চল্য ছড়িয়েছে মুর্শিদাবাদের বেলডাঙায়।

আরও পড়ুন: ঔরঙ্গবাদের পুনরাবৃত্তি বীরভূমে, বরাতজোরে রক্ষা পেলেন পরিযায়ী শ্রমিকরা

মৃতের নাম জেহের আলি শেখ। পেশায় তিনি ছিলেন রাজমিস্ত্রি। বাড়তি রোজগারের আশায় কয়েক মাস আগে ওড়িশায় গিয়েছিলেন তিনি।  রোজগারপাতিও মন্দ হচ্ছিল না। কিন্তু এমন বিপর্যয় যে ঘটবে, তা কে জানত! পরিবারের লোকেরা জানিয়েছেন, লকডাউন জারি হওয়ার পর বিপাকে পড়ে জেহের। হাতে যেটুকু টাকা-পয়সা ছিল, তা শেষ হয়ে যায় কয়েক দিনেই। পরিস্থিতি বেগতিক বুঝে স্থানীয় এক ঠিকাদারের বাইকে চেপে বাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা হন তিনি। দু'দিন পর পৌঁছন কলকাতায়। এরপর শুরু হয় হাঁটা। মুর্শিদাবাদের বেলডাঙার বাড়িতে পৌঁছন আরও কয়েকদিন পর। 

আরও পড়ুন: মালদহে রেশন 'পাচারের চেষ্টা' বানচাল, পিকঅ্যাপ ভ্যানে মিলল চাল ও আটা

আরও পড়ুন:'করোনা যুদ্ধ' জিতে ফিরলেন ৩৬ জন, পুষ্পবৃষ্টিতে স্বাগত জানালেন স্থানীয়েরা

সবকিছু ঠিকঠাকই ছিল। শুক্রবার সকালে আচমকাই বাড়িতে মারা যান জেহের আলি শেখ। অন্তত তেমনই দাবি পরিবারের লোকেরা। খবর চাউর হতেই শোরগোল পড়ে যায় এলাকায়। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক সকলেই। শোকের ছায়া পরিবারের।