পুরসভা নির্বাাচনের  আগে আরও এক বড় ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা  বন্দ্য়োপাধ্যায়। স্বাস্থ্যসাথী, সমব্যাথী, কন্যাশ্রী একাধিক প্রকল্পের পর এবার 'কর্মসাথী' প্রকল্পের ঘোষণা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। মঙ্গলবার কালিয়াগঞ্জের সভায় এই ঘোষণা করলেন তিনি।

কলকাতার বুকে গোলি মারো স্লোগান, রাজ্য়পাল বললেন ০.১ শতাংশ গুরুত্বপূর্ণ

একাধিক প্রকল্পের সঙ্গে এদিন মঞ্চে কর্মসাথী প্রকল্পের কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রী।  প্রকল্প অনুযায়ী রাজ্য়ের ১ লক্ষ ছেলে-মেয়েকে ব্যবসার জন্য টাকা দেবে রাজ্য় সরকার। ঋণ হিসেবে বেকার যুবক-যুবতীরা এই অর্থরাশি পাবেন। মূলত, ছোট ব্যবসা করায় উৎসাহীদেরই এই টাকা দেবে রাজ্য় সরকার। রাজ্য়ের সাম্প্রতিক  অতীতের দিকে তাকালে দেখা  যাবে,২০২০-এর বাজেটে 'কর্মসাথী' প্রকল্পের ঘোষণা করেন অর্থমন্ত্রী। তিনি  বলেন, এই প্রকল্পের মাধ্যমে খুব সহজেই ঋণ নিয়ে ব্যবসা শুরু করতে পারবেন বেকার যুবক-যুবতীরা। যা তাঁদের আর্থিকভাবে স্বাবলম্বী হতে সাহায্য় করবে।

কলকাতা-সহ রাজ্য জুড়ে বজ্রবিদ্যুৎ-সহ বৃষ্টির সম্ভাবনা, আগামীকাল থেকে বৃদ্ধি পাবে বৃষ্টির পরিমান

তবে শুধু কর্মসাথী নয়, এদিন কালিয়াগঞ্জের সভা থেকেই 'জয় বাংলা' প্রকল্পের উদ্বোধন করেন মুখ্যমন্ত্রী। মূলত, তফশিলি জাতির জন্য এই প্রকল্পের করা হয়েছে।  কিছুদিন আগেই বিধানসভা উপনির্বাচনে এই কালিয়াগঞ্জ থেকে জয় পেয়েছে তৃণমূল কংগ্রেস। যার পুরস্কারস্বরূপ আগেই বহু প্রকল্পের কথা শোনা গিয়েছিল ঘাসফুল নেতাদের মুখে। এবার কালিয়াগঞ্জে এসে সেই প্রকল্পগুলিই ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী।

কলকাতার বুকে গোলি মারো স্লোগান, রাজ্য়পাল বললেন ০.১ শতাংশ গুরুত্বপূর্ণ

মূলত, রায়গঞ্জে সংগঠন শক্তিশালী করেছে বিজেপি। অতীতের ভোটেও সেই পরিসংখ্যান কালীঘাটের চিন্তা বাড়িয়েছে। পুরসভা ভোটের আগে তাই এই অঞ্চলের জন্য় মমতা যে দরাজ হবেন, তা আর বলা অপেক্ষা রাখে না। তবে শুধু প্রকল্পের কথা উল্লেখ করেই এদিন থেমে থাকেননি  মুখ্যমন্ত্রী। আক্রমণ শানিয়েছেন বিজেপিকেও। সিএএ-র বিরুদ্ধে এদিন মমতা বলেন,'বিজেপির মিথ্যা কথায় কেউ ভুলবেন না। বাংলা থেকে কাউকে তাড়াতে দেব না।