নিজের ভাইকে ধারাল অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে খুন করে পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করল দাদা! বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাটি ঘটেছে দক্ষিণ ২৪ পরগনার ফলতা থানার ভগবানপুর গ্রামে। নিহত যুবক চন্দন কয়াল(৩০)। ঘটনার জেরে এলাকায় যথেষ্ট উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে। অভিযুক্ত দাদা উদয় কয়াল কে গ্রেফতার করেছে ফলতা থানার পুলিশ।

আরও পড়ুন: 'তুমি রবে নীরবে', সুশান্ত সিং রাজপুতের 'মৃত্যুর শোকে' আত্মঘাতী উত্তরপাড়ার তরুণী

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, উদয় কয়াল কলকাতাতে শ্বশুর বাড়িতে থাকেন। দু-তিন দিন আগে দেশের বাড়ি ফলতার ভগবানপুরে আসেন। এদিন দুপুরে বাড়িতে কেউ না থাকায় দুই ভাই উদয় কয়াল ও চন্দন কয়াল বাড়িতে বসেই মদ্যপান করছিলেন। এরই মাঝে দুজনের মধ্যে বচসা বেঁধে যায়। বচসার জেরে দাদা উদয় কয়াল ধারালো অস্ত্র দিয়ে চন্দন কয়ালকে কুপিয়ে খুন করে বলে অভিযোগ। এরপর অভিযুক্ত চন্দন কয়াল পাশে গ্রাম হেলেগাছিয়ায় গিয়ে এক সিভিক পুলিশ কর্মীর কাছে আত্মসমর্পণ করে। 

আরও পড়ুন: ভোজনরসিক বাঙালির জন্য় সুখবর, বর্ষার শুরুতেই বাজারে চলে এল ইলিশ

এদিকে ঘটনার কথা চাউর হতেই চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে এলাকায়। খবর দেওয়া হয় ফলতা থানায়। মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠানো হয়। গ্রেফতার করা হয়েছে অভিযুক্তকে। ঠিক কী কারণে এমন ঘটনা ঘটল, খতিয়ে দেখছে পুলিশ।