লকডাউনের কারণে বাইরে বেরনোর উপায় নেই। স্ত্রীর সঙ্গে ব্যাডমিন্টন খেলতে গিয়ে বাড়ির ছাদ থেকে পড়ে মারা গেলেন অবসরপ্রাপ্ত এক শিক্ষক। মর্মান্তিক ঘটনা ঘটেছে বাঁকুড়ার বিষ্ণুপুরে। 

আরও পড়ুন: গ্রামের রাস্তায় পেখম মেলেছে ময়ূর, শোরগোল বেলদায়

মৃতের নাম দুলাল চন্দ্র দে। বাড়ি, বিষ্ণুপুর শহরের শালবাগান এলাকায়। স্থানীয় কুষদীপ হাইস্কুলের খেলাধুলারই শিক্ষক ছিলেন দুলাল। গত বছর চাকরি থেকে অবসর নেন তিনি। স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, প্রতিদিন নিয়ম করে সন্ধেবেলায় বাড়ির বাইরে ব্যাডমিন্টন খেলতেন অবসরপ্রাপ্ত ওই স্কুল শিক্ষক। তবে লকডাইন জারি হওয়ার পর প্রয়োজন ছাড়া বাইরে বেরোতেন না। বৃহস্পতিবার রাতে বাড়ির ছাদে স্ত্রীর সঙ্গে ব্যাডমিন্টন খেলতে গিয়েই ঘটে দুর্ঘটনা। 

আরও পড়ুন: দার্জিলিং-এ শিলাবৃষ্টি, বরফের আস্তরণে ঢাকল টাইগার হিলের চুড়া


স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন, জুতো পরে খেলছিলেন দুলালবাবু। খেলতে খেলতে জুতোটি স্লিপ করে যায়। শরীরের ভারসাম্য রাখতে না পেরে একতলা বাড়ির ছাদ থেকে নিচে পড়ে যান তিনি। গুরুতর জখম অবস্থায় প্রথমে তাঁকে নিয়ে যাওয়া হয় বিষ্ণুপুর জেলা হাসপাতালে। কিন্তু আঘাত গুরুতর হওয়ায় রোগীকে অন্যত্র রেফার করে দেন চিকিৎসকরা। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। জেলা হাসপাতাল থেকে অন্যত্র নিয়ে যাওয়ার পথেই মারা যান দুলাল চন্দ্র দে। ঘটনার আকস্মিকতায় হতবাক পরিবার লোক ও পাড়া-প্রতিবেশীরা। তাঁদের আক্ষেপ, বরাবরই খেলাধুলা ভালবাসতেন দুলাল। শেপর্যন্ত সেই খেলার নেশার প্রাণ কাড়ল!!