টেলিভিশন চালালেই সবার প্রথমে নজরে আসে নারী নির্যাতন, ধর্ষণ, বধূ নির্যাতন, গণধর্ষণের মতো একাধিক খবর।  দিনের পর দিন চলতে থাকছে এই নারকীয় অত্যাচার। ছোট, বড়, বয়স্ক কেউই যেন বাদ পড়ছে না সেই তালিকা থেকে। মেয়েরা কবে নিস্তার পাবে এই  অত্যাচারের থেকে তার কোনও সুদুত্তর নেই।  মেয়ে সন্তান হওয়া মানেই সবার মনেই ভীতি, মুখেচোখে টেনশনের চাপ স্পষ্ট। আবার কারোর মেয়ে সন্তান হওয়ার কারণেই সংসারে অশান্তি, ভ্রূণহত্যা এমনকী শেষ পর্যন্ত মৃত্যুও ঘটছে একাধিক মেয়ের। এই ধরণের ঘটনা আকছার ঘটে চলেছে চোখের সামনে। এর প্রতিবাদ জানানোর কেউ নেই। কিন্তু এই সমাজ, সমাজের নিয়ম, সমালোচনা এই সব কিছুকে বুড়ো আঙ্গুল দেখিয়ে সম্প্রতি প্রকাশ্যে এসেছে একটি ঘটনা। যা রীতিমতো সবাইকে চমকে দিয়েছে।

আরওপড়ুন-বঙ্গের প্রত্যন্ত গ্রামে হাজির ডলফিন বাবাজী, খেলা দেখিয়ে জিতে নিল সকলের মন...

সোশ্যাল মিডিয়া খুললেই বারেবারে সামনে আসছে একটি ভিডিও। মুহূর্তের মধ্যে দাবানলের মতোন ছড়িয়ে গেছে ভিডিওটি।  সদ্যোজাত একটি কন্যা সন্তানকে ঘিরে ঘটানাটি ঘটেছে। হাসপাতাল থেকে বাড়িতে কন্যা সন্তান ঢুকতেই চারিদিকে বেজে উঠেছে শঙ্খ, উলু। এ যেন সাক্ষাৎ মা লক্ষ্মীর প্রবেশ করছে।  বাড়ির মা লক্ষ্মীকে বরণের এই তৎপরতা দেখেই সবাই অবাক। সারা বাড়িতে আলোর রোশনাই।  বেলুন দিয়ে সাজানো হয়েছে গোটা বাড়ি। এখানেই শেষ নয়, দুধ আলতার মধ্যে রাঙানো হয়েছে মা লক্ষ্মীর পদযুগলকে। সেই আলতা রাঙানো পায়ের ছাপও নেওয়া হয়েছে যত্ন সহকারে। আর এই ভিডিওটি সাড়া ফেলে দিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। দেখে নিন সেই ভিডিওটি।

মায়ের কোল আলো করে ঘরে এসেছে সাক্ষাৎ মা লক্ষ্মী। সারা বাড়িতে খুশির জোয়ার বইছে। কন্যা সন্তানই হবে আগামী দিনের আশা ভরসা। তাকে সঙ্গে নিয়ে শুরু করে নতুন করে পথ চলা।  তাকে নিয়ে বাঁচবে গোটা পরিবার। এহেন প্রতিটি সন্তানই যেমন এণন পরিবারই পায় সে আশাই কাম্য। সন্তান পুত্র হোক বা কন্যা প্রত্যেকের জীবনেই যেন এমন করে আলোয় ভরা খুশির দিন বারেবারে ফের আসে।