রাখীর বাজারেও জোর টক্কর মোদী- মমতার। আগামী ১৫ অগাস্ট রাখী। তার আগে নিমেষে উড়ে যাচ্ছে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদী এবং মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া রাখী। অন্য দিকে রাজ্য সরকারের উদ্যোগে জনপ্রতিনিধিদের হাতে পৌঁছে গিয়েছে সরকারি বিশ্ব বাংলা রাখি।  সবমিলিয়ে উত্তর দিনাজপুরে রাখীর বাজার সরগরম। 

গত লোকসভা নির্বাচনে এ রাজ্য থেকেও বিপুল সাফল্য পেয়েছে বিজেপি। রায়গঞ্জ লোকসভা কেন্দ্র থেকেও জিতেছেন বিজেপি প্রার্থী দেবশ্রী চৌধুরী। ফলে গেরুয়া সমর্থকদের নজরে পড়ার  লক্ষ্যেই এ বার রায়গঞ্জের বাজার ছেয়ে গিয়েছে নরেন্দ্র মোদীর ছবি লাগানো রাখীতে। পাল্লা দিয়ে বাজারে এসেছিল মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি লাগানো রাখীও। 

আরও পড়ুন- তিন তালাক থেকে মুক্তি, বড় দাদা মোদীকে রাখী পাঠালেন বারাণসীর মুসলিম মহিলারা

আরও পড়ুন- ভাই বা বোন কি গ্যাজেট প্রিয়! রাখীর উপহারের তালিকায় রাখুন এইগুলি

আরও পড়ুন- জেনে নিন রাখি পূর্নিমা উৎসবের দিন ক্ষণ

মোদী- মমতার ছবি লাগানো রাখী কতটা বিক্রি হবে, তা নিয়ে প্রথমে সংশয়ে ছিলেন বিক্রেতারা। কিন্তু বাজারে আসতেই হু হু করে বিক্রি হতে শুরু করে ওই দুই রকমের রাখী। এর পরেই বাজারে চাহিদা বেড়ে যায় প্রধানমন্ত্রী এবং মুখ্যমন্ত্রীর ছবি লাগানো রাখীর। মূলত দুই দলের নেতা, কর্মীরাই প্রায় সমস্ত রাখীই কিনে নিয়েছেন। 

রাজ্যে রাজনৈতিক পারদ চলছে। দুর্গা পুজোর মতো রাখীর দখল নিতেও মরিয়া দুই রাজনৈতিক দলই। স্বভাবতই মোদী এবং মমতার ছবি দেওয়া রাখীর চাহিদা তুঙ্গে। কিন্তু রায়গঞ্জের বাজারে এ রকম রাখী আর বোধহয় এক পিসও পড়ে নেই। তবে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ছবি দেওয়া রাখীর পাশাপাশি রাজ্য সরকারের তরফে বিশ্ববাংলার লোগো দেওয়া নীল রংয়ের রাখীও জনপ্রতিনিধিদের কাছে পৌঁছে গিয়েছে।