বিজেপির নবান্ন অভিযানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুলি মন্তব্যের জের, আদালতের দ্বারস্থ সুকান্ত মজুমদার

| Sep 29 2022, 02:59 PM IST

বিজেপির নবান্ন অভিযানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুলি মন্তব্যের জের, আদালতের দ্বারস্থ সুকান্ত মজুমদার
বিজেপির নবান্ন অভিযানে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুলি মন্তব্যের জের, আদালতের দ্বারস্থ সুকান্ত মজুমদার
Share this Article
  • FB
  • TW
  • Linkdin
  • Email

সংক্ষিপ্ত

নবান্ন অভিযানকাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুলি-মন্তব্যের রেশ যে অদূর ভবিষ্যতেও গড়াবে, তা বোঝা গিয়েছিল। তার মন্তব্যের পরেই রীতিমত জলঘোলা শুরু করে বিরোধীরা।। ব্যাঙ্কশাল আদালতে অভিষেকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন সুকান্ত মজুমদার।

বিজেপির নবান্ন অভিযানে আহত এসিপি দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে এসএসকেএমে দেখতে গিয়ে নিজের কপাল দেখিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় মন্তব্য করেছিলেন, আমি থাকলে এখানে গুলি করতাম। তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদকের ওই মন্তব্যের প্রেক্ষিতে এবার আদালতের দ্বারস্থ হলেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি। জানা গিয়েছে ব্যাঙ্কশাল আদালতে মামলা করেছেন সুকান্ত মজুমদার।

নবান্ন অভিযানকাণ্ডে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়ের গুলি-মন্তব্যের রেশ যে অদূর ভবিষ্যতেও গড়াবে, তা বোঝা গিয়েছিল। তার মন্তব্যের পরেই রীতিমত জলঘোলা শুরু করে বিরোধীরা।। ব্যাঙ্কশাল আদালতে অভিষেকের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন সুকান্ত মজুমদার। দু পক্ষের আইনজীবীদের মধ্যে বচসা, কথা কাটাকাটিও শুরু হয় বৃহস্পতিবার বলে সূত্রের খবর। গেরুয়া শিবিরের দাবি, অভিষেকের ওই মন্তব্যের বিরুদ্ধে এফআইআর করার চেষ্টা করেছিলেন বিজেপি নেতারা, কিন্তু পুলিশ এফআইআর নিতে চায়নি। এরপরই মামলা করা হয়েছে বলে দাবি।

Subscribe to get breaking news alerts

বৃহস্পতিবার আদালতে উপস্থিত হয়েছিলেন খোদ সুকান্ত মজুমদার। তাঁর দাবি, পুলিশকে এফআইআর নিতে হবে। এরপর পুলিশ কোনও ব্যবস্থা না নিলে, তাঁরা ফের আদালতের দ্বারস্থ হবেন বলে সূত্রের খবর। একজন জনপ্রতিনিধি এই ধরনের কথা জনসমক্ষে বলতে পারে না বলে দাবি করেছেন বিজেপি রাজ্য সভাপতি।

নবান্ন অভিযানে কলকাতা জুড়ে যেভাবে তুলকালাম কান্ড চালিয়েছিল বিজেপি, তাতে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে বুধবার মুখ্যমন্ত্রীর থেকেও চড়া সুরে গোটা পরিস্থিতি ও অচলাবস্থার নিন্দা করেন  তৃণমূলের সর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। উল্লেখ্য, কলকাতা পুলিশ সূত্রে দাবি লালবাজারের সেন্ট্রাল ডিভিশনের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনার দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায় বিক্ষোভকারীদের ছত্রভঙ্গ করার চেষ্টা করলে তাঁর উপর চরাও হয় বিক্ষোভকারীরা। দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে একা পেয়ে চারিদিক থেকে ঘিরে ফেলা হয় এবং রাস্তায় ফেলে লাঠি দিয়ে বেধড়ক মারধর করা হয়। ঘটনায় হাত ভেঙে যায় কলকাতা পুলিশের অ্যাসিস্ট্যান্ট কমিশনারের। কোনও মতে তাঁকে উদ্ধার করে SSKM হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। 

এসএসকেএমে অভিষেক আহত পুলিশকর্তা দেবজিৎ চট্টোপাধ্যায়কে দেখতে আসেন। সৌজন্যের সাক্ষাতে দেবজিতের শারীরিক পরিস্থিতি সম্পর্কে ও চিকিৎসা পরিষেবা নিয়ে খোঁজ খবর নেন তিনি। এরপর এসএসকেএম থেকে বেরিয়ে সাংবাদিক সম্মেলন করেন অভিষেক। 

তিনি বলেন  “আমি অফিসারকে কুর্নিশ জানিয়েছি। যেভাবে তিনি ধৈর্য আর সংযমের পরিচয় দিয়েছেন তার জন্য আমি তাঁকে স্যালুট জানিয়েছি। আমি যদি ওখানে থাকতাম তাহলে মাথায় শুট করে দিতাম। গুলি চালিয়ে দিতাম।” এদিন পুলিশের রীতিমত প্রশংসা করেন অভিষেক। তিনি বলেন, “চাইলে সাঁতরাগাছিতে এলোপাথাড়ি গুলি চালিয়ে বিজেপির ২০-২৫ জনকে শিক্ষা দিতে পারত। খেলা শুরুর আগেই শেষ হয়ে যেত। কিন্তু তা করেনি। যা হয়েছিল একুশে জুলাই, যা হয়েছিল সিঙ্গুর কিংবা নন্দীগ্রামে। কাল কিন্তু তা হয়নি। এটাই তো পরিবর্তন। পুলিশের সবথেকে বড় পরিবর্তন এটাই।”

SSC Scam: চাকরিপ্রার্থীদের নম্বরে কারচুপির মাস্টারমাইন্ড সুবীরেশ, আদালতে পেশ করে দাবি CBI-এর

'যারা দুর্নীতি করেছেন স্বেচ্ছায় চাকরি ছাড়ুন, নইলে কঠোর পদক্ষেপ', SSC মামলায় হুঁশিয়ারি আদালতের

গর্ভপাত করাতে পারবেন বিবাহিত-অবিবাহিত সব মহিলাই, নিরাপদ গর্ভপাত দিবসে বড় রায় সুপ্রিম কোর্টের

Read more Articles on