Asianet News Bangla

হিজবুল মুজাহিদীনের শিক্ষক নিয়োগ হুমকিকাণ্ডে তদন্তে STF, আজ রায়গঞ্জে ৪ সদস্যের প্রতিনিধি দল

হিজবুল মুজাহিদীনের নাম করে উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সিডি দেওয়া ও হুমকির কান্ডে সোমবার প্রেসক্লাব চত্বর এলাকা পরিদর্শন করল রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স।   যদিও তাঁরা এদিন কোনও ছবি তুলতে দেয়নি।  

STF have launched an investigation into the authenticity of the Hizbul Mujahideen threat CD RTB
Author
Kolkata, First Published Jul 19, 2021, 2:11 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

শিক্ষক নিয়োগে জঙ্গির হুমকিকাণ্ডে উত্তর দিনাজপুরে রাজ্য পুলিশের এসটিএফ শাখা। উল্লেখ্য, হিজবুল মুজাহিদীনের নাম করে উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাবে সিডি দেওয়া ও হুমকির কান্ডে সোমবার প্রেসক্লাব চত্বর এলাকা পরিদর্শন করল রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স। 

আরও পড়ুন, 'হয় ৬ আত্মীয়কে শিক্ষকের চাকরি, না হলে হত্যালীলা'- হিজবুল মুজাহিদিনের কি খেয়ে বসে কোনও কাজ নেই

 


সোমবার শিক্ষক নিয়োগে জঙ্গির হুমকিকাণ্ডে উত্তর দিনাজপুরে পরিদর্শনে এসেছে এসটিএফ বাহিনীর চার সদস্যসের প্রতিনিধি দল। যদিও তাঁরা কোনও ছবি তুলতে দেয়নি।  প্রেসক্লাব ভবনের বাইরে থেকেই পরিদর্শন করেন তাঁরা। শুধু প্রেসক্লাব ভবনই নয়, প্রেসক্লাব ভবন চত্বর ছাড়াও আশপাশের এলাকাও ঘুরে ফিরে দেখেন তাঁরা। প্রসঙ্গত, ১৭ জুলাই সকালে রায়গঞ্জ স্টেশন সংলগ্ন এলাকায় উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাব ভবনে সাংবাদিকেরা এসেই দেখতে পান, হিজবুল মুজাহিদীনের নাম করে একটি প্ল্যাস্টিকের প্যাকেটে সিডি এবং তার সঙ্গে একটি হুমকি সহ চিরকুট বারান্দায় ফেলে যায়। 

আরও পড়ুন, 'পাশ করেও কেন চাকরি পাব না', ভবানী ভবনের সামনে বিক্ষোভ পার্থীদের

সেখানে লেখা ছিল,'এটি পাওয়া মাত্রই সব চ্যানেলে দেখাতে হবে। নইলে হিংসার স্বীকার হবে।' সিডিটি চালিয়ে দেখা যায় তৌসিব আলি নামে এক ব্যক্তি বক্তব্য রাখছেন। যেখানে ওই জঙ্গি সংগঠনের তরফে স্পষ্ট জানিয়েছেন যে, রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগের তালিকায় তাঁর ৬ জন আত্মীয় রয়েছেন। যারা চাকরি না পেয়ে আত্মহত্যার কথা ভাবছে। অবিলম্বে এদের নিয়োগ না করা হলে, রাজ্যের ১৩ হাজার চাকরী প্রার্থীকে মেরে ফেলার হুমকি দিয়েছেন। তবে শুধু চাকরি প্রার্থীকেই নয়, কমিশনের আধিকারিক সহ একাধিক নেতাকেও খুনের হুমকি দিয়েছে ওই জঙ্গি সংগঠন। আর দুর্গাপুজোর আগেই সেই হত্যালীলা চালানো হবে বলে জানিয়েছেন তিনি। তবে এখানেই শেষ নয়, এই বিষয়ে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করতে বলেছেন তিনি।  উল্লেখ্য, এই ভিডিওর সত্যতা যাচাই করেনি এশিয়ানেট নিউজ বাংলা।

আরও পড়ুন, শুভেন্দুর সঙ্গে থাকতে আগ্রহ প্রকাশ করেছেন বিহারের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী, কোন পথে মমতা


এরপরই প্রেসক্লাবের পক্ষ থেকে খবর দেওয়া হয় রায়গঞ্জ থানার পুলিশকে। ছুটে আসে রায়গঞ্জ থানার আইসি সুরজ থাপা সহ বিশাল পুলিশবাহিনী। হিজবুল মুজাহিদীনের নামে পাঠানো সিডির ভিডিও সত্যতা যাচাইয়ে নামে রায়গঞ্জ পুলিশ জেলার পুলিশ।  ঘটনার তদন্তে নামে পুলিশ। একদিন বাদে  সোমবার রায়গঞ্জের উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাব ভবন চত্বরে আসেন রাজ্য পুলিশের স্পেশাল টাস্ক ফোর্স বা এসটিএফ-র চার সদস্যসের প্রতিনিধি দল। তবে ওই প্রতিনিধি দল প্রেসক্লাব ভবনের ভেতরে প্রবেশ করেনি বা প্রেসক্লাবে থাকা কোনও সাংবাদিকের সঙ্গেও কথা বলেনি। তবে এটা বলাই যায় উত্তর দিনাজপুর প্রেসক্লাবে হিজবুল মুজাহিদীনের নাম করে সিডি পাঠানো ও হুমকি দেওয়ার ঘটনার তদন্তে নামল এসটিএফ।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios