তৃণমূলের 'দিদিকে বলো'-র পাল্টা কৌশল নিয়ে জনসংযোগের কাজ করে দিলেন বীজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায়। সাধারণ মানুষের সঙ্গে যোগাযোগ আরও নিবিড় করতে 'ঘরের ছেলেকে বলো' নাম দিয়ে নিজের বিধানসভা এলাকায় প্রচারে নেমে পড়েছেন শুভ্রাংশু। 

'ঘরের ছেলেকে বলো' নামে এই প্রচার কৌশলের সমর্থনে বীজপুরে রীতিমতো ব্যানার, পোস্টার টাঙিয়ে প্রচার শুরু করেছেন শুভ্রাংশু। তৃণমূলের কায়দাতেই বাড়ি বাড়ি গিয়ে নিজের ফোন নম্বর লেখা কার্ড দিয়ে আসছেন মুকুল পুত্র। শুরুতেই সাধারণ মানুষের থেকে প্রচুর ফোন পাচ্ছেন বলে জানিয়েছেন শুভ্রাংশ। তবে তাঁর দাবি, কোনও পেশাদার সংস্থা বা অন্য কেউ নন, সমস্ত ফোনই নিজে ধরে সাধারণ মানুষের সমস্যার সমাধান করছেন তিনি। 

আরও পড়ুন- 'মুকুল ও শুভ্রাংশু প্রস্তুত হও'! কাটমানি ফেরত চেয়ে এবার বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে পোস্টার

আরও পড়ুন- মমতা না শোধরালে ফল ভুগবে তৃণমূল, হুঁশিয়ারি শুভ্রাংশুর

শুভ্রাংশু বলেন, 'আমার ফোন চব্বিশ ঘণ্টাই খোলা থাকে। যাঁরা সমস্যা নিয়ে ফোন করছেন, তাঁদের দেখা করতে বলছি। যদি পুরসভা সংক্রান্ত সমস্যা হয়, তাহলে চেয়ারম্যানের কাছে পাঠাচ্ছি। রাজ্য সরকারের সমস্যা হলে তাঁদের কাছে পাঠাচ্ছি। কিন্তু এঁরা কেউই সাহায্য করবে না বলে ধরে নিয়ে সেরকম সমস্যা এলে কেন্দ্রীয় সরকারের কাছে পাঠাতে হবে।'

শুভ্রাংশুর অবশ্য অভিযোগ, বেশ কিছু ফোনে তাঁকে অশ্রাব্য গালিগালাজ করা হচ্ছে। এমনকী, এই কর্মসূচি শুরু করার জন্য তাঁকে প্রাণনাশের হুমকিও দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ বিজেপি নেতার। 

তবে তৃণমূলের 'দিদিকে বলো' কর্মসূচিকে নকল করার বিষয়টি এড়িয়ে গিয়েছেন বীজপুরের বিধায়ক। শুভ্রাংশু বলেন, 'মানুষ কাউকে না কাউকে তো নকল করেই। আমি মানুষের পাশে থাকতে এটা করেছি। দিদি কাকে নকল করছে, আর আমি কাকে নকল করছি, তা মানুষ বিচার করবে।' শুভ্রাংশু আরও বলেন, 'এলাকার মানুষ আমাকে ঘরের ছেলে হিসেবেই ভাবেন। আর সেই জায়গা থেকেই আমাকে অভাব, অভিযোগের কথা জানাচ্ছেন।'