ছাত্রীর অশ্লীল ছবি তুলে সোশ্য়াল মিডিয়ায় পোস্টের হুমকি দিয়ে গ্রেফতার হল শিক্ষক। এই  ঘটনাটি বসিরহাট মহকুমার সন্দেশখালি আতাপুরের। প্রেমের অভিনয় করে দিনের পর দিন ছাত্রীকে পড়াতে গিয়ে তার অশ্লীল ছবি তুলে রাখে ওই গৃহ শিক্ষক। এই ঘটনা প্রকাশ্য়ে আসতেই গৃহ শিক্ষককে গ্রেফতার করে  পুলিশ।

আরও পড়ুন, এনআরসি আতঙ্কে অবরুদ্ধ মালদহ, আধার কার্ডের লাইনে অসুস্থ মহিলা ও শিশুরা

ঘটনাটি ঘটেছে আতাপুর হাইস্কুলের বছর সোলোর নাবালিকার সঙ্গে। নির্যাতিতা নাবালিকা দশম শ্রেণীর ছাত্রী। প্রতিবেশী যুবক পেশায় গৃহশিক্ষক মুজিবর গাজী বাড়িতে পড়তে যেত। সেই সুযোগে ভালোবাসার অভিনয় করে কিছু অশ্লীল ছবি তুলে নেয় সে। তারপর সেই অশ্লীল ছবি ফেসবুক হোয়াটসঅ্যাপ ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেয় বলে, অভিযোগ । এমনকি ছবি তুলে ব্ল্যাকমেইল করার চেষ্টা করে ওই ছাত্রীকে। ওই গৃহ শিক্ষকের বিরুদ্ধে ছাত্রীর বাবা  উৎপল দলুই ও ছাত্রী সন্দেশখালি থানায় অভিযোগ দায়ের করেন।

আরও পড়ুন, মেলায় গিয়ে রহস্যজনকভাবে খুন উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষার্থী, সঙ্কটজনক বন্ধু

 আজ মঙ্গলবার ভোর বেলা সন্দেশখালি থেকে গৃহশিক্ষক মুজিবর গাজীকে গ্রেপ্তার করে  সন্দেশখালি থানার পুলিশ। ধৃত গৃহশিক্ষক কে আজ মঙ্গলবার বসিরহাট মহকুমা আদালতে তোলা হয়েছে। বসিরহাট মহকুমা আদালতে বিচারক রায় দেন ধৃত গৃহ শিক্ষকের তিন দিনের পুলিশ হেফাজতে নেওয়ার । ছাত্রী ও পরিবারের দাবি, অভিযুক্ত গৃহশিক্ষকের দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হোক।