পাহাড়ে গোর্খাল্য়ান্ড ইস্যুতে বিজেপিকে নিশানা করলেন মুখ্যমন্ত্রী। ভোটের সময় এলেই বিজেপি গোর্খাল্যান্ড ইস্যু জাগিয়ে তোলে বলে দাবি করলেন তৃণমূল নেত্রী। জলপাইগুড়ির সভা থেকে মুখ্যমন্ত্রীর স্পষ্ট বার্তা, পাহাড়ের স্থায়ী রাজনৈতিক সমাধান একমাত্র তৃণমূল করতে পারবে। আর কেউ পারবে না। স্পষ্ট জানালেন তৃণমূল নেত্রী।

আরও পড়ুন-বিজেপির 'প্রতিশ্রুতি' তোপ মমতার,' বিজেপি নতুন দাঙ্গা ধর্ম-ঘৃণ্য ধর্ম এনেছে', কটাক্ষ তৃণমূল নেত্রীর

উত্তরবঙ্গ সফরে গিয়ে মঙ্গলবার জলপাইগুড়িতে সভা করেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানকার এবিপিসি ময়দান থেকে গোর্খাল্যান্ড ইস্যুতে নিজের অবস্থান স্পষ্ট করলেন মমতা। তিনি বলেন, পাহাড়ের স্থায়ী রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান একমাত্র আমরাই পারব। বিজেপি পারবে না। ছয় বছর ধরে বিজেপি গুরুংদের প্রতিশ্রুতি দিয়ে যাচ্ছে। বাংলাকে ভাগ করে পৃথক রাজ্য করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছে। তাই ওরা ২০১৪ ও ২০১৯ সালে পাহাড়ে জিতেছে। আমরা প্রতিশ্রুতি দিইনি। তাই আমরা ভোটে জিতিনি। কিন্তু বিজেপিও তাঁদের দেওয়া প্রতিশ্রুতি দেয়নি।

আরও পড়ুন-রাজ্য নয়, এবার থেকে কেন্দ্রীয় নিরাপত্তায় শুভেন্দু, বুলেট প্রুফ গাড়ি সহ দেখভালের দায়িত্বে এসআইবি

ভোটের সময় এলেই বিজেপি গোর্খাল্যান্ড ইস্যুকে জাগিয়ে তোলে। বাংলা ভাগ করে পৃথক গোর্খাল্যান্ডকে বরাবরই সমর্থন জানিয়েছে বিজেপি। তাই ক্ষমতায় আসার জন্য গোর্খাল্যান্ডের প্রতিশ্রুতিও দিয়েছেন নেতারা। জলপাইগুড়ির সভা থেকে বিজেপির বিরুদ্ধে এমনটাই অভিযোগ করলেন তৃণমূল নেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।  এর থেকে মমতার স্পষ্ট বার্তা আগামী বিধানসভা ভোটে গুরুংরা যতই তৃণমূলকে সমর্থন দিক না কেন, গোর্খাল্যান্ডের প্রতিশ্রুতি মমতার সরকার কোনও দিন দেবে না।