Asianet News BanglaAsianet News Bangla

'রেশন নিয়ে কেউ আন্দোলন করলে হাত-পা ভেঙে দিন', নয়া নিদানে ফের বিতর্কে অনুব্রত মণ্ডল

  • রেশনে দুর্নীতির অভিযোগ ক্ষোভ বাড়ছে গ্রাহকদের 
  • এই ইস্যুতে আন্দোলনে নেমেছে বিজেপি
  • গেরুয়াশিবিরকে পাল্টা হুঁশিয়ারি অনুব্রত মণ্ডলের
  • বিতর্ক তুঙ্গে রাজনৈতিক মহলে
     
TMC leader Anubrata Mandal makes another controversial comment on Ration Corruption
Author
Kolkata, First Published Jul 16, 2020, 2:55 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

আশিষ মণ্ডল, বীরভূম:  'রেশন নিয়ে কেউ আন্দোলন করলে হাত-পা ভেঙে দিন।' দলের কর্মী সম্মেলনে নয়া নিদান দিলেন তৃণমূল কংগ্রেসের জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। আন্দোলনে বাধা দিলে হাত-পা গুটিয়ে বসে থাকব না, পাল্টা হুঁশিয়ারি বিজেপির জেলা নেতৃত্বের। রাজনৈতিক তরজা তুঙ্গে বীরভূমে।

আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় পদক্ষেপ, ফের লকডাউন জারি করা হল শিলিগুড়িতে

কোথাও কুপন বিলিতে 'স্বজনপোষণ, তো কোথাও আবার গ্রাহকদের কার্ড আটকে রেখে চাল, ডাল-সহ বিভিন্ন সামগ্রী 'আত্মসাৎ', রেশনে দুর্নীতি অভিযোগ উঠেছে বীরভূমের বিভিন্ন প্রান্তে। দিনে কয়েক আগে ময়ূরেশ্বর ১ নম্বর ব্লকে বিক্ষোভের মুখে পড়ে রেশন আত্মসাতের অভিযোগ স্বীকারও করে নেন ডিলার। রীতিমতো মুচলেকা দিয়ে জানান, রেশনের যে সামগ্রী আত্মসাৎ করেছেন, তা গ্রাহকদের ফিরিয়ে দেবেন। এই ইস্যুতে হাতিয়ার করে আন্দোলনে নেমেছে বিজেপি। রেশন দুর্নীতির অভিযোগে যেখানে বিক্ষোভ দেখাচ্ছেন স্থানীয় বাসিন্দারা, সেখানেই হাজির হচ্ছেন গেরুয়াশিবিরের নেতারা।

গত বেশ কয়েকদিন ধরে জেলার বিভিন্ন ব্লকের দলের কর্মীদের নিয়ে সম্মেলন করছেন তৃণমূলের বীরভূম জেলা সভাপতি অনুব্রত মণ্ডল। বুধবার শাসকদলের কর্মী সম্মেলন ছিল মল্লারপুরে। কিন্তু ঘটনা হল, সভামঞ্চ স্যানিটাইজ করা হলেও, স্বাস্থ্যবিধির কোনও বালাই ছিল না। সামাজিক দূরত্ব তো দূরস্থান, সম্মেলনে অনেক তৃণমূলকর্মীর মুখে মাস্কও ছিল না! অনুব্রত মণ্ডলের যাতায়াতের জন্য ঘণ্টা তিনেক ৬০ নম্বর জাতীয় সড়কে যান চলাচল বন্ধ করে দেয় পুলিশ। ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েন সাধারণ মানুষ।

কর্মী সম্মেলনে কী বললেন অনুব্রত? ভাষণের শুরুতে যথারীতি ভুলত্রুটি ক্ষমা করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে ভোট দেওয়ার আবেদন জানান তিনি। এরপর ময়ুরেশ্বর ১ নম্বর ব্লকের দক্ষিণগ্রাম অঞ্চলের দলের প্রধানকে তৃণমূলের জেলা সভাপতি নির্দেশ, 'আপনার ওখানে বিজেপি রেশন নিয়ে আন্দোলন করছিল। আপনারা কি করছিলেন। মেরে হার পা ভেঙে দিতে পারেননি। আমি কোন কথা শুনব না।' অনুব্রত মণ্ডলের সাফ কথা, 'রেশন নিয়ে কেউ যদি আন্দোলন করে, রেশন দোকান ভাঙচুর করে তাহলে তাদের পাল্টা দিন। মারামারি করতে চাইলে আমরাও ছাড়ব না।' 

আরও পড়ুন: 'দিদিকে বলো'র ধাঁচে এবার 'পুরসভাকে বলো', চালু হল টোল ফ্রি নম্বর

রেশন দুর্নীতি নিয়ে তৃণমূলকেও পাল্টা হুঁশিয়ারি দিয়েছে বিজেপির জেলা সম্পাদক অতনু চট্টোপাধ্যায়। তিনি বলেন, 'রেশন ডিলারদের চুরির সঙ্গে তৃণমূল সরাসরি যুক্ত। আমরা সমস্ত রেশন ডিলারের দুর্নীতির তথ্য জোগাড় করেছি। একজন দুর্নীতিগ্রস্থ ডিলারও বাঁচবে না। তৃণমূল কাউকে বাঁচাতে পারবে না। আর আমাদের আন্দোলনে বাধা দিতে এলে আমরাও হাত গুটিয়ে বসে থাকব না।'

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios