মঙ্গলবার নির্দেশ দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চব্বিশ ঘণ্টার মধ্যেই রান্নার গ্যাসের দামের মূল্যূবৃদ্ধির প্রতিবাদে রাস্তায় নামল তৃণমূল কংগ্রেস। এ দিন কলকাতায় জোড়া প্রতিবাদ মিছিল করে তৃণমূল। তার মধ্যে গোলপার্ক থেকে হাজরা পর্যন্ত মিছিলে অংশ নেনে তৃণমূল সাংসদ অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও মৌলালি থেকে ধর্মতলা পর্যন্তও একটি মিছিল করে তৃণমূল। 

নরেন্দ্র মোদী সরকার দ্বিতীয়বার ক্ষমতায় আসার পর থেকেই বেশ কয়েক দফায় পেট্রোল, ডিজেলের দাম বেড়েছে। এর পাশাপাশি এ মাসের শুরুতেই ফের রান্নার গ্যাসের দামও বাড়ানো হয়েছে। ভর্তুকিযুক্ত রান্নার গ্যাসের দাম বেড়েছে সিলিন্ডার পিছু ১ টাকা ২৩ পয়সা করে। আর ভর্তুকিযুক্ত রান্নার গ্যাসের দাম সিলিন্ডার পিছু ২৫ টাকা করে বৃদ্ধি পেয়েছে। 

এ দিন তৃণমূলের মিছিলে অংশ নিয়ে অভিষেক বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, "যারা ধর্মের নামে আর অচ্ছে দিনের প্রতিশ্রুতি দিয়ে মানুষের কাছ থেকে ভোট চায়, এটাই হচ্ছে তাদের আসল চেহারা। আর বিজেপি-র রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ তো বলছেন যে আস্তে আস্তে ভর্তুকি পুরোপুরি তুলে নেওয়া হবে। আমাদের নেত্রীর নির্দেশে আমরা এর বিরুদ্ধে আন্দোলনে নেমেছি। এই আন্দোলন চলবে।"

অভিষেকের অভিযোগ, রাজ্য থেকে মাত্র ১৮টি আসন পেয়েই এরাজ্যে সন্ত্রাসের পরিবেশ তৈরি করতে চাইছে বিজেপি। সিপিএমের কায়দাতেই রাজ্যে বিজেপি-ও একই কায়দায় সন্ত্রাস ছড়াতে চাইছে বলে অভিযোগ করেন তৃণমূল সাংসদ। 

তবে শুধু কলকাতা নয়, এর পাশাপাশি বিভিন্ন জেলাতেও ব্লকস্তরে রান্নার গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধির বিরুদ্ধে এ দিন বিক্ষোভ দেখিয়েছে তৃণমূল। এক দিকে বিজেপি যখন জয় শ্রীরামের মতো স্লোগানে ভর করে ধর্মীয় মেরুকরণের মাধ্যমে এ রাজ্যে নিজেদের পায়ের তলার মাটি শক্ত করতে চাইছে, তখন কেন্দ্রের জনবিরোধী নীতিকে হাতিয়ার করেই পাল্টা জনসমর্থন ফিরে পাওয়ার চেষ্টা করছে রাজ্যের শাসক দল।