জমে উঠেছে পুরুলিয়া জেলার রাজনীতি। একদিকে যখন নিজেদের শক্তিবৃদ্ধি করতে উঠে পড়ে লেগেছে গেরুয়া শিবির। অন্যদিকে, হরিপদ সাহিত্য মন্দিরে শুভেন্দু অধিকারীর সমর্থনে সভা করছেন তৃণমূলের বিক্ষুব্ধরা। এরই পাশাপাশি, ফ্য়াসিবাদ বিরোধী গণমঞ্চের ডাক দিয়ে বিশাল জনসভা করলেন মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু ও দোলা সেন। বিধানসভা ভোচের আগে রাজ্য রাজনীতিতে আকর্ষণের কেন্দ্রবিন্দু হয়ে উঠছে পুরুলিয়া।

আরও পড়ুন-'একসঙ্গে কাজ করে এগিয়ে যাব', ৪৬তম মার্কিন প্রেসিডেন্ট বাইডেনকে অভিনন্দন প্রধানমন্ত্রী মোদীর

পুরুলিয়ার হুড়া ব্লকের লালপুর এক বিশাল জনসভার আয়োজন করা হয়। ফ্যাসিবাদ বিরোধী গণমঞ্চের ডাক দিয়ে বিশাল জনসভা করে তৃণমূল কংগ্রেস। সেখানে বক্তব্য রাখেন পূর্ণেন্দু বসু ও দোলা সেন। 'সময়ের ডাক, বাংলার প্রতিবাদ'। রাজ্যের উন্নয়নের ধারাকে অব্যাহত রাখতে তৃণমূলের হাত শক্ত করার আহ্বান জানান মন্ত্রী পূর্ণেন্দু বসু। তাঁর দাবি, বিগত নয় বছরে বাংলার মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায় রাজ্যের উন্নয়নে যা কাজ করেছেন, ভারত বর্ষের কোনও মুখ্যমন্ত্রী করতে পারেনি। পাশাপাশি, কেন্দ্রের মিথ্যা প্রতিশ্রুতির বিরুদ্ধে মানুষকে প্রতিরোধ করতে এই ফ্য়াসিবাদ বিরোধী গণমঞ্চ থেকে রাজ্যবাসীকে আহ্বান জানানো হয়েছে।

আরও পড়ুন-পুজোর পরও দুর্গাপুজো, করণদিঘির সোনামতি কুম্ভরানির দুর্গাপুজো নমোনমো করেই পালন হল এবছর

সব মিলিয়ে একুশের বিধানসভা ভোটের আগে পশ্চিমাঞ্চলের গুরুত্বপূর্ণ জেলা পুরুলিয়া থেকে নির্বাচনী প্রচার শুরু করে দিয়েছে তৃণমূল। গত লোকসভা ভোটে হারানো শক্ত মাটি ফিরে পেতে চাইছে ঘাসফুল শিবির। অন্যদিকে, পুরুলিয়ার সুখা মাটিতে শিকড় শক্ত করেছে পদ্মশিবিরও। তৃণমূলের বিক্ষুব্ধ গোষ্ঠীকে সামাল দিতে আসরে নামছেন শীর্ষ দলীয় নেতৃত্বরাও।