রাজ্যের খেলসম্মান অনুষ্ঠানে বাংলার বিনিয়োগের পক্ষে সওয়াল করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। আগামী পাঁচ বছরে রাজ্যে দেড় কোটি কর্মসংস্থান হয়েছে বলে পরিসংখ্যান দিলেন মমতা। তৃণমূল নেতৃত্বাধীন সরকারে বাংলায় ৪০ শতাংশ বিনিয়োগ হয়েছে বলে দাবি করলেন মুখ্যমন্ত্রী। পাশাপাশি, রাজ্যের ক্লাবগুলিকে অনুদান প্রদান করা নিয়ে বিরোধীদের একহাত নিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়।

আরও পড়ুন-রাজ্যের 'খেলসম্মান' অনুষ্ঠান, সম্মানিত হলেন মেহুলি ঘোষ-আতার আলি সহ অন্যরা

রাজ্যের ক্রীড়া দফতরের অনুষ্ঠান থেকে বেশ কয়েকটি ক্লাবের জন্য আর্থিক অনুদান ঘোষণা করেন মুখ্যমন্ত্রী। সোমবার নেতাজী ইন্ডোরে এই অনুষ্ঠানে বাংলার ৩৪টি ক্রীড়া সংস্থার হাতে আর্থিক অনুদান তুলে দেন মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ''ক্লাবকে সাহায্য করলে অনেকের রাগ হয়। রাগ হয় কেন''? প্রশ্ন তোলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। হকিরা অ্যাস্ট্রোট্রাফের জন্য ২০ কোটির অনুদান দিয়েছে রাজ্য সরকার। এছাড়াও ক্রীড়া ক্ষেত্রে বিশিষ্ট ব্যক্তিত্বদের খেলসম্মান প্রদান করেন মুখ্যমন্ত্রী।

আরও পড়ুন-পুলিশের পর প্রশাসনিক পর্যায়েও বড়সড় রদবদল, একাধিক অফিসারকে বদল করল নবান্ন

নেতাজী ইন্ডোরে এই অনুষ্ঠানে খেলসম্মান প্রদান করা হয়, মেহুলি ঘোষ, আতার আলি, হিমাশ্রী রায় সহ আরও বেশ কয়েকজন ক্রীড়াবিদকে। এছাড়াও, চলতি বছরে বাংলার গৌরব সম্মানের জন্য নির্বাচিত হয়েছেন দুলাল বিশ্বাস ও মান্তু ঘোষরা। ক্রীড়া গুরু সম্মাননা পেলেন স্মিতা চট্টোপাধ্য়ায়, তরুণ সাহা বহু ক্রীড়াবিদ। রাজ্য সরকারের তরফে বীরবাহাদূর ছেত্রীকে জীবনকৃতি সম্মানে ভূষিত করা হয়।