বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসই শুধু নয়, বিমানসেবিকাকে ধর্ষণ করতেও পিছুপা হল না প্রেমিক! অভিযুক্তকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এমনই চাঞ্চল্যকর ঘটনা ঘটেছে বসিরহাটের হাড়োয়ার শালিপুর গ্রামে।

আরও পড়ুন: স্বামীহারা মহিলাকে আটকে রেখে রাতভর 'ধর্ষণ', পুলিশের জালে দুই অভিযুক্ত

জানা গিয়েছে,  অভিযুক্তের নাম গিয়াসউদ্দিন মোল্লা। বাড়ি, দক্ষিণ ২৪ পরগণার কাশিপুর থানার শ্যামনগরে। দমদম বিমানবন্দরে যাতায়াত ছিল তাঁর। সেই সুবাদে হাড়োয়ার শালিপুরের বাসিন্দা এক তরুণীর সঙ্গে আলাপ হয় গিয়াসউদ্দিনের। ক্রমেই ঘনিষ্টতা বাড়তে থাকে দু'জনের। বন্ধুত্বের সম্পর্ক প্রণয়ে গড়াতে বেশি সময় লাগেনি। গিয়াসউদ্দিনের 'প্রেমিকা'র অভিযোগ, বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে একাধিকবার তাঁর সঙ্গে সহবাস করেছে অভিযুক্ত। এমনকী, পরবর্তীকালে রাজি না হওয়ার ধর্ষণও করে সে। শেষপর্যন্ত যখন অন্তঃস্বত্ত্বা হয়ে পড়েন, তখন নির্যাতিতাকে গর্ভপাত করাতে বাধ্য করা হয়। এরপর গিয়াসউদ্দিন সাফ জানিয়ে দেন, তাঁর পক্ষে প্রেমিকাকে বিয়ে করা সম্ভব নয়।  

আরও পড়ুুন: দল বিরোধী কাজের অভিযোগ, শোকজ তৃণমূলের তিন নেতা

জানা গিয়েছে, প্রেমিকের কাছ থেকে প্রত্যাখ্যাত হয়ে হাড়োয়া থানায় গিয়াসউদ্দিন মোল্লার বিরুদ্ধে সহবাস, ধর্ষণ ও ভয় দেখিয়ে গর্ভপাতের অভিযোগ করেন নির্যাতিতা তরুণী। রবিবার রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগণার কাশিপুর থেকে অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। নির্যাতিতার শারীরিক পরীক্ষা করা হয়েছে বসিরহাট জেলা হাসপাতালে। আদালতে ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে গোপন জবানবন্দিও দিয়েছেন তিনি। যাবতীয় অভিযোগ অস্বীকার করেছে অভিযুক্ত।