সরকারি আবাস যোজনার প্রকল্পে কাটমানি চাওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূল কাউন্সিলরের বিরুদ্ধে। হোওয়াটস অ্যাপে ঘুরে বেড়াচ্ছে সেই ভয়েস রেকর্ডিং। যদিও হোওয়াটসঅ্যাপের মেসেজ যাচাই করেনি এশিয়ানেট নিউজ বাংলা।

মমতার স্বপ্নের ইস্ট-ওয়েস্ট মেট্রোর উদ্বোধন কলকাতায়, অথচ ব্রাত্য় খোদ মুখ্য়মন্ত্রী

ডোমকল আছে ডোমকলেই। মাস কয়েক আগে জেলার নবগঠিত ডোমকল পুরসভার তৎকালীন পুরপ্রধান সৌমিক হোসেনের বিরুদ্ধে স্বজনপোষণ, দুর্নীতির অভিযোগ ওঠে। যার জেরে খোদ দলীয় কাউন্সিলররা তাকে অপসারিত করে নতুন চেয়ারম্যান হিসেবে বেছে নেন জাফিকুল ইসলামকে। সেই ঘটনার জের কাটতে না কাটতেই, এবার ৯ নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দা মুসলিমা খাতুনের থেকে 'হাউসিং ফর অল' প্রকল্পে কাটমানি  চাওয়ার অভিযোগ উঠল তৃণমূলের কাউন্সিলর আসাদুল ইসলামের বিরুদ্ধে। ইতিমধ্য়েই প্রকাশ্য়ে এসেছে দুজনের  কথোপকথনের কল রেকর্ডিং।

'উনি কবে কাকে সম্মান দিয়েছেন', আমন্ত্রণ বিতর্কে মুখ্যমন্ত্রীকে নিশানা দিলীপের

সরকারি বরাদ্দ টাকা থেকে কাটমানি চাওয়ার অভিযোগে তোলপাড় হয়ে উঠেছে এলাকা। বৃহস্পতিবার এই ঘটনায় অভিযোগকারী ওই মহিলা বলেন," আমার কাছেই ইতিমধ্যে প্রথম দফায় ওই কাউন্সিলর ৫০ হাজার টাকা নিয়েছেন। ফের একবার দ্বিতীয় কিস্তির টাকা থেকে ৩০ হাজার টাকা দাবি করেছেন। এমনকী ওই টাকা না দিলে প্রাণনাশের হুমকি পর্যন্ত দেন। আমি পুরো বিষয়টি পুলিশ প্রশাসনকে জানিয়েছি"। 

বকেয়া বেতন না মেটানোয় অনির্দিষ্টকালের জন্য কর্ম বিরতি, ৭৮ টি সরকারি কলেজে অন্দোলন চুক্তিভিত্তিক কর্ম

যদিও এই চাঞ্চল্যকর অভিযোগের ব্যাপারে  অভিযুক্ত তৃণমূল কাউন্সিলর আসাদুল ইসলামের সাথে যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন," এ নিয়ে এখন আমার কিছু বলার নেই যা বলার সময় এলেই বলব"। জানা গিয়েছে, ডোমকল পুরসভার ৯নম্বর ওয়ার্ডের বাসিন্দাা মুসলিমা খাতুনের মায়ের নামে বছরখানেক আগে গৃহ তৈরি করার জন্য  'সবার জন্য বাড়ি' এই সরকারি প্রকল্পে ৩ লক্ষ ৬৮ হাজার টাকা বরাদ্দ হয়। অভিযোগ ওই টাকার প্রথম কিস্তি ১ লক্ষ ২০ হাজার টাকার মধ্যে থেকে ৫০ হাজার টাকা তৃণমূল কাউন্সিলর কাউন্সিলর  আসাদুল ইসলামকে কাটমানি হিসেবে দিতে হয়। এ পর্যন্ত সব ঠিক থাকলেও ফের  দ্বিতীয় কিস্তির ১ লক্ষ ৩০ হাজার টাকা ঢোকে। তারপর আবারও ৩০ হাজার টাকা দাবি করা হয়েছে। 

আর সেই ফোনে টাকা চাওয়ার কথোপকথনই প্রকাশ্যে আসতেই শোরগোল পড়েছে তৃণমূলের অন্দরে। এ ব্যাপারে ডোমকল পুরসভার নবনিযুক্ত চেয়ারম্যান জাফিকুল ইসলামের সাথে  যোগাযোগ করা হলে তিনি বলেন," এই ধরনের ঘটনা যদি সত্য বলে প্রমাণিত হয় তাহলে অবশ্যই উপযুক্ত ব্যবস্থা নেওয়া হবে"।