কুসংস্কারের বিরুদ্ধে সরকারি ও বেসরকারি স্তরে প্রচার তো কম হচ্ছে না। কিন্তু সাধারণ মানুষের হুঁশ ফিরছে কই! পুরুলিয়ায় ফের ডাইনি সন্দেহে এক বৃদ্ধাকে মারধর করলেন গ্রামবাসীরা। আক্রান্ত হয়েছেন ওই বৃদ্ধার মেয়ে ও বউমা। তিনজনেই ভর্তি পুরুলিয়া সদর হাসপাতালে। বেশ কয়েকজনকে আটক করেছে পুলিশ।

আরও পড়ুন: প্রসেনজিতের বাগানবাড়িতে বিপত্তি, জলে নেমে তলিয়ে গেল যুবক

আরও পড়ুন: চলন্ত ট্রেন থেকে সন্তানকে নিয়ে ছিটকে পড়লেন গৃহবধূ, মিলল না সাহায্য

আক্রান্তের নাম বেহুলা গোপ।  পুরুলিয়ার বাঘমুন্ডি থানার রামডি গ্রামে থাকেন তিনি।  বেহুলার বয়স ষাট পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু হলে কী হবে! স্রেফ কুসংস্কারের বশে ওই বৃদ্ধাকেও রেয়াত করলেন না গ্রামবাসীদের একাংশ। অভিযোগ, সোমবার ডাইনি সন্দেহে গ্রামেরই কয়েকজন মিলে ওই বৃদ্ধাকে বেধড়ক মারধর করেন। মেয়ে ও বউমা যখন বেহুলাকে বাঁচাতে যান, তখন তাঁদের উপরও চড়া হয় অভিযুক্তরা।  ঘটনার পর তিনজনকে উদ্ধার করে প্রথমে নিয়ে যাওয়া হয় বাঘমুন্ডি প্রাথমিক স্বাস্থ্যকেন্দ্রে। কিন্তু শারীরিক অবস্থায় অবনতি হওয়ার তাঁদের পাঠিয়ে দেওয়া হয় পুরুলিয়ার সদর হাসপাতালে।  ঘটনার তদন্তে নেমে বাঘমুন্ডির রামডি গ্রামের বেশ কয়েকজন বাসিন্দাকে পুলিশ আটক করেছে বলে জানা গিয়েছে। যদিও ডাইনি সন্দেহে মারধরের অভিযোগ মানতে চাইছেন না স্থানীয় বাসিন্দারা।