Asianet News BanglaAsianet News Bangla

self-reliant in chop shilpo: মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় চপ ভেজে স্বনির্ভর, জানালেন পুরুলিয়ার তরুণ

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় চপ শিল্পে এবার লগ্নি করল পুরুলিয়ার প্রত্যন্ত  বান্দোয়ান এলাকার শিক্ষিত এক গ্রামীন সম্পদ কর্মী। 

Young man from Purulia thanks cm Mamata Banerjee for becoming self-reliant in chop shilpo bsm
Author
Kolkata, First Published Nov 20, 2021, 12:15 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (CM Mamata Banerjee) অনুপ্রেরণায় চপ শিল্প (Chop Shilpo) তৈরি করে নজির তৈরি করেছেন জঙ্গল মহল পুরুলিয়ার (Purulia) বান্দোয়ানের শিক্ষিত যুবক পেশায় পঞ্চায়েতের এক গ্রামীন সম্পদ কর্মী।"মুখ্যমন্ত্রীর চপ শিল্পকে কটাক্ষ নয়, এর থেকে অনুপ্রেরণা পেয়েই খুলেছি চপ শিল্প নামের দোকান"। দাবি দোকান মালিকের।চপ শিল্প করে আর্থিকভাবে স্বনির্ভর হওয়ার জন্য মুখ্যমন্ত্রীকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন বান্দোয়ানের এম এ পাস যুবক বিশ্বজিৎ কর মোদক।

মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়ের অনুপ্রেরণায় চপ শিল্পে এবার লগ্নি করল পুরুলিয়ার প্রত্যন্ত  বান্দোয়ান এলাকার শিক্ষিত এক গ্রামীন সম্পদ কর্মী। অবশ্য এক্ষেত্রে মুখ্যমন্ত্রীকে তিনি ধন্যবাদও জানিয়েছেন। কারণ মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের  বার্তাকে অনুসরণ করেই চপ শিল্পে লগ্নি করে আজ যে স্বনির্ভর হয়েছেন তিনি তা অবশ্য অকপটে স্বীকার করছেন বিশ্বজিৎ কর মোদক নামের ঐ ব্যক্তি। অন্যদিকে তাঁর এই উদ্যোগকে  সাধুবাদ জানিয়েছেন প্রতিবেশীরা। প্রতিবেশী তথা স্থানীয় বাসিন্দা নমিতা হালদার বলেন, ভি আর পি-র দৈনিক ১৭৫ টাকার বেতনের চাকরি আর কিছু টিউশন পড়িয়ে ওর সংসার চলত। কিন্ত করোনা পরিস্থিতিতে টিউশন বন্ধ। তাই আমরা, স্থানীয় বাসিন্দারাই বিশ্বজিৎকে চপের দোকান করতে সাহায্য করেছি।চপের দোকান করে দৈনিক বিক্রিও হচ্ছে ভালো, দোকানের কাজের জন্য রাখা হয়েছে একজন কর্মী বলেও জানিয়েছেন বিশ্বজিৎ কর মোদক।

Deucha-Panchami: দেউচা-পাঁচামি কয়লাখনির প্যাকেজ নিয়ে আলোচনা, সময় দেওয়ার আশ্বাস প্রশাসনের

Tathagata Roy: 'আপাতত বিদায়', আবার বিতর্কিত টুইট তথাগত রায়ের, পাল্টা কটাক্ষ কুণালের

Mysterious death শৌচাগারে চিকিৎসকের দেহ, মৃত্যুঘিরে ক্রমশই দানা বাঁধছে রহস্য

এখন সোশ্যাল মিডিয়া থেকে পাড়ার মোড়ে মোড়ে আলোচনার বিষয়বস্তু বান্দোয়ানের চপ শিল্প নামের অভিনব দোকান। চপ ভাজার দোকান করে একসময় রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী বেকার যুবকদের স্বনির্ভর হওয়ার কথা বলেছিলেন। বেশ কয়েক বছর পরে হলেও মুখ্যমন্ত্রীর বেকার যুবকদের সেই স্বনির্ভর হওয়ার পরামর্শ খাতায়-কলমে ফলপ্রসূ হয়েছে জঙ্গলমহলের ব্লক বান্দোয়ানে। যদিও এই চপ শিল্পের মালিক বিশ্বজিৎ কর মোদকের এই ব্যবসা পার্টটাইম বা অবসর সময়ের।কারণ তিনি পেশায় একজন পঞ্চায়েতের অস্থায়ী গ্রামীন সম্পদ কর্মী। তবে এই ব্যবসা করে তার প্রতিদিন রোজগার হচ্ছে প্রায় বারোশো(১২০০ টাকা)। তাই চপ শিল্পে যে ভালোভাবেই স্বনির্ভর হওয়া যায় তার উৎকৃষ্ট উদাহরণ বিশ্বজিৎ কর মোদক। আর বিশ্বজিৎ কর মোদকের কাছে অনুপ্রেরণা পেয়ে এখন অনেকেই চাইছেন পাড়ার মোড়ে মোড়ে চপ শিল্প তৈরি করতে।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios