Asianet News Bangla

বিয়ের মাস দেড়ের পরই সব শেষ, চন্দননগরে এবার করোনায় মৃত্যু স্কুলশিক্ষিকার

  • ২৪ ঘণ্টার ব্যবধানে ফের করোনা ছোবল
  • এবার প্রাণ গেল প্রাথমিক স্কুলের শিক্ষিকার
  • দেড় মাস আগে বিয়ে করেছিলেন তিনি
  • ঘটনাস্থল, সেই হুগলির চন্দননগর 
     
Young Primary school teacher dies off Coronavirus in Hooghly
Author
Kolkata, First Published Jul 14, 2020, 7:56 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

উত্তম দত্ত, হুগলি:  বিয়ে করেছিলেন মাস দেড়েক আগে। করোনা সংক্রমণে এবার মারা গেলেন প্রাথমিক স্কুলের এক শিক্ষিকা। ঘটনাস্থল, সেই হুগলির চন্দনগর। এলাকায় শোকের ছায়া।

আরও পড়ুন: খোলা জায়গায় পড়ে রইল করোনা আক্রান্তের দেহ, আতঙ্ক ছড়াল খোদ মন্ত্রীর ওয়ার্ডে

মৃতার নাম সৌমি সাহা। বাড়ি, চন্দনগরের মুন্সিপুকুর এলাকায়। হুগলিরই পোলবার একটি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে শিক্ষিকা ছিলেন বছর চৌত্রিশের ওই তরুণী। জানা গিয়েছে, কয়েকদিন ধরে জ্বর ও শ্বাসকষ্টের সমস্যায় ভুগছিলেন সৌমি। লালারস পরীক্ষায় করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। চিকিৎসাও করিয়েছিলেন চন্দননগর হাসপাতালে। ওই শিক্ষিকার মা-ও করোনায় আক্রান্ত হয়ে ওই হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে। মেয়েকে হোম আইসোলেশনে থাকার পরামর্শ দেন চিকিৎসকরা। তাতে কি  ঘটল বিপত্তি? শারীরিক অবস্থায় অবনতি হওয়ায় ব্যান্ডেলের ইএসআই কোভিড হাসপাতালে ভর্তি হন সৌমি। কিন্তু শেষরক্ষা হয়নি। মঙ্গলবার সকালে মারা যান প্রাথমিক স্কুলের ওই শিক্ষিকা। সূত্রের খবর, লকডাউনের মাঝেই মাস দেড়েক আগে ভিন রাজ্য়ের এক যুবককে বিয়ে করেছিলেন তিনি।  

আরও পড়ুন: কেন চিকিৎসা পরিষেবা পেল না ইছাপুরের তরুণ,রাজ্যকে হলফনামার নির্দেশ হাইকোর্টের

উল্লেখ্য,  সোমবার করোনায় আক্রান্ত হয়ে মাত্র আটত্রিরিশ বছর বয়সে মারা যান চন্দননগরের ডেপুটি ম্যাজিস্ট্রেট দেবদত্তা রায়। ছেলের সঙ্গে সময় কাটাবেন বলে ছুটি নিয়ে দমদমে বাড়ি গিয়েছিলেন তিনি। সেখানে থাকাকালীনই ওই তরুণী প্রশাসনিক আধিকারিক ও তাঁর স্বামী করোনায় আক্রান্ত হন। শারীরিক অবস্থায় অবনতি হওয়ায় রবিবার দেবদত্তাকে ভর্তি করা হয় শ্রীরামপুরের শ্রমিকজীবী হাসপাতালে। সোমবার সকালে মারা যান তিনি। 

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios