Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Purba Bardhaman- ফের মমতার বিরুদ্ধে কুরুচিকর পোস্ট, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় করেছি, সাফাই ধৃত যুবকের

পূর্ব বর্ধমানের মেমারির ওই যুবকের দাবি, নেশাগ্রস্ত অবস্থায় ভুল করে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে মন্তব্য করে ফেলেছেন। রবিবারই অভিযুক্তকে আদালতে তোলা হয়।

youth has been arrested for making obscene posts about CM Mamata Banerjee
Author
Purba Bardhaman, First Published Nov 21, 2021, 7:52 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে(CM Mamata Banerjee) নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায়(social media) কুরুচিকর পোস্টের ঘনঘটা ক্রমেই যেন বেড়ে চলেছে। সবথেকে বেশি এই প্রবণতা দেখা যাচ্ছে যুব সমাজের মধ্যে। ফলস্বরূপ হাজতবাসও করতে হচ্ছে একাধিক তরুণ-তরুণীকে। এবার সেই একই ঘটনার পুনরাবৃত্তি দেখতে পাওয়া গেল পূর্ব বর্ধমানের মেমারির(Memari) আমাদপুরে। মমতাকে নিয়ে কুরুচিকর পোস্ট করার অভিযোগে গ্রেফতার হল এলাকারই এক যুবক। নির্দিষ্ট অভিযোগ পেয়ে সঞ্জিত মূর্মূ নামে ওই যুবককে গ্রেফতার করেছে পুলিশ(police)।

প্রসঙ্গত উল্লেখ্য, গত ১৭ নভেম্বর নেতাজি ইন্ডোরে(Netaji Indoor) রেশন নিয়ে মুখ্যমন্ত্রীর একটি অনুষ্ঠান সোশ্যাল মিডিয়া লাইভ সম্প্রচারিত হচ্ছিল। অভিযোগ ওই ভিডিওর কমেন্ট বক্সে এসে একটি কুরুচিকর মন্তব্য করেন সঞ্জিত। তার বক্তব্যের প্রেক্ষিতে একাধিক মন্তব্যেও ভেসে আসে সেই সময়। শুর হয় চর্চা। এরপরেই ২০ নভেম্বর মেমোরির আমাদপুর অঞ্চল তৃণমূল কংগ্রেসের(Trinamool Congress) সভাপতি বাপ্পা দাস মেমারি থানার ওই যুবকের নামে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন বলে জানা যায়। অভিযোগের পরিপ্রেক্ষিতে আমাদপুর থেকে মেমারি থানার পুলিশ সঞ্জিতকে গ্রেপ্তার করে বলে জানা যায়।

আরও পড়ুন-‘সায়নী-কুনালরা বহিরাগত তাই পুলিশ ডেকেছে’, ত্রিপুরা বিতর্কে চাঁচাছোলা আক্রামণ সুকান্তের

শেষ পাওয়া খবর অনুযায়ী রবিবারই ধৃতকে বর্ধমান আদালতে(court) পাঠানো হয়। যদিও সঞ্জিতের দাবি, ভুল করে মুখ্যমন্ত্রীর বিরুদ্ধে কুরুচিকর মন্তব্য করে ফেলেছেন তিনি। নেশা করার কারণেই এমনটা হয়েছে। স্বাভাবিক পরিস্থিতি থাকলে কখনওই এমনটা হত না। রবিবার আদালতে যাওয়ার সময় অভিযুক্ত যুবক বলেন, “নেশাগ্রস্ত অবস্থার কারণেই এমনটা হয়েছেয নেশা করার জন্য সে দিন আমার হুঁশ ছিল না। ভুলবশতই পোস্টটা হয়ে গিয়েছে।’’ যদিও তার কথা মানতে নারাজ বর্ধমানের তৃণমূল নেতৃত্ব। এমনকী নিজের দোষ ঢাকতেই সঞ্জিত এমনটা বলছেন বলে দাবি করেছেন অনেকে।

আরও পড়ুন-বিজেপিকে ঠেকাতে মমতার সঙ্গে জোটের ইঙ্গিত CPIML-র, দীপঙ্করের বার্তায় জোর জল্পনা

এদিকে রাজ নেতা হোক বা সেলিব্রিটি, প্রায়শই সোশ্যাল মিডিয়ায় ‘ট্রোলের’ শিকার হন অনেকেইই। অনেক সময়েই শুধুমাত্র হাস্যরস উদ্রেকের জন্য করা হলেও একাধিক ক্ষেত্রে তা মাত্রা ছাড়াতেও দেখা গিয়েছে। এমনকী ব্যঙ্গত্মক ভঙ্গিতে করা অনেক পোস্ট ছাড়িয়ে যায় শালীনতার যাবতীয় সীমা। তবে এই সমস্ত ক্ষেত্রে খুব কম ক্ষেত্রেই পুলিশে দায়ের হয় মামলা। তবে গত কয়েক মাসে বা বলা ভালো বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকে রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রীকে নিয়ে করা কুরুচিকর পোস্টের সংখ্যা বহুগুণ বেড়ে গিয়েছে। তৃণমূলের দাবি এর বহু ক্ষেত্রেই সরাসরি হাত রয়েছে বিরোধীদের।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios