Asianet News BanglaAsianet News Bangla

ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের জলবণ্টন সমস্যা কি সহজতর হবে? মোদী সাক্ষাতের আগে বার্তা হাসিনার

ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে তিস্তার জলচুক্তি নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ আলোচনা চললেও জট কাটেনি। ভারত সফরের আগে নদীজল বণ্টন নিয়ে মন্তব্য করে বাংলাদেশের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে রাখলেন হাসিনা। 

Bangladesh PM Sheikh Hasina comments on River water sharing before visiting India ANBSS
Author
First Published Sep 4, 2022, 4:04 PM IST

জলবণ্টন নিয়ে ভারতের আরও একটু উদারতা দেখানো উচিত। তাতে দু’দেশই উপকৃত হবে। ভারত সফরে আসার আগে বললেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। ৫ সেপ্টেম্বর নয়াদিল্লিতে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হবে শেখ হাসিনার। তবে পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় হাসিনার এই সফরে আমন্ত্রিত হয়ে দিল্লি যাচ্ছেন কি না, তা এখনও জানা যায়নি।

ভারত ও বাংলাদেশের মধ্যে ৫৪টি এমন নদী রয়েছে, যেগুলির উপর দুই দেশই নির্ভর করে। তার মধ্যে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ নদীটির নাম তিস্তা। ভারত-বাংলাদেশের মধ্যে তিস্তার জলচুক্তি নিয়ে দীর্ঘ দিন যাবৎ আলোচনা চললেও জট কাটেনি। ভারত সফরের আগে নদীজল বণ্টন নিয়ে মন্তব্য করে বাংলাদেশের চাহিদাকে প্রাধান্য দিয়ে রাখলেন হাসিনা। সংবাদ সংস্থাকে দেওয়া সাক্ষাৎকারে তিনি বলেন, “আমি মনে করি, এই সমস্যার সমাধান হওয়া উচিত। এটি একটি দীর্ঘ দিনের সমস্যা। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীও এই সমস্যা সমাধানে আগ্রহী।” গত ২৫ অগস্ট নয়াদিল্লিতে ভারত-বাংলাদেশ নদী কমিশনের মন্ত্রী পর্যায়ের বৈঠক হয়। সেই বৈঠকে ৭টি নদীকে জলবণ্টনের বিষয়ে চিহ্নিত করা হয়েছে বলে সূত্রের খবর। মুহুরি, ফেনি, কুশিয়ারার মতো বড় নদীর জলবণ্টন নিয়েও উভয় দেশের আলোচনা হয়েছে সেই বৈঠকে।

তিস্তার জল বণ্টন নিয়ে আপত্তি জানিয়ে রেখেছেন পশ্চিমবঙ্গের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শেখ হাসিনার আসন্ন সফরে দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্য ছাড়া দু’দেশের জলবণ্টনের বিষয়টিও অনেকটাই গুরুত্ব পেতে চলেছে বলে ধারণা বিশেষজ্ঞদের। তবে, তিস্তা নিয়ে ভারতের দিক থেকে কোনও ইতিবাচক ইঙ্গিত না পেলে, বিশেষ ভাবে বাংলাদেশের পক্ষ থেকে এ নিয়ে প্রকাশ্যে বেশি কথা হাসিনা বলতে চাইছেন না বলেই নয়াদিল্লি সূত্রের খবর। প্রধানমন্ত্রীর সফরকে সফল করতে চেষ্টার কোনও খামতি রাখছে না বাংলাদেশ। 

৫ সেপ্টেম্বর, সোমবার ভারত সফরে আসবেন হাসিনা। ৮ সেপ্টেম্বর বাংলাদেশে ফিরে যাওয়ার পরিকল্পনা রয়েছে তাঁর। সফরের প্রথম দিন দিল্লির হজরত নিজামউদ্দিন আউলিয়া দরগায় যাওয়ার কথা রয়েছে। প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর সঙ্গে দ্বিপাক্ষিক বৈঠক হবে। রাষ্ট্রপতি দ্রৌপদী মুর্মু এবং উপরাষ্ট্রপতি জগদীপ ধনখড় এবং বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্করের সঙ্গে দেখা করারও কথা রয়েছে তাঁর। সফরের শেষ দিন রাজস্থানের অজমেঢ়ে যাবেন তিনি।


আরও পড়ুন-
মাসের পর মাস সহবাস, বাড়ি ফিরে গ্রামের মেয়েকে বিয়ে, সুদূর জয়পুর থেকে মালদহে প্রেমিকের বাড়ির সামনে ধর্নায় যুবতী
বঙ্গে চিটফান্ড সংস্থায় ফের জড়াল শাসকদলের নাম, বর্ধমানে সিবিআইয়ের নজরে তৃণমূল নেতা প্রণব চট্টোপাধ্যায়

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios