শুক্রবার বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা অসমের নতুন মুখ্যমন্ত্রী হেমন্ত বিশ্ব শর্মাকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেষ হাসিনা। তিনি ভারতের সঙ্গে সম্পর্কের উন্নতির লক্ষ্যে তিনি তাঁকে বাংলাদেশ সফরের জন্য আহ্বানও জাবিয়েছেন। সোমবার অসমের পঞ্চদশ মুখ্যমন্ত্রী হিসেবে শপথ গ্রহণ করেছিলেন হেমন্ত বিশ্বশর্মা। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শুভেচ্ছা তাঁর কাছে অত্যন্ত মূল্যবান বলেও জানিয়েছেন তিনি। 

বাংলাদেশের বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমেই হেমন্ত বিশ্ব শর্মাকে শুভেচ্ছা জানান হয়েছে। একই সঙ্গে তাঁর ও অসমের সাফল্য কামনা করা হয়েছে। দুই দেশের সম্পর্কের উন্নতির কথাও বলা হয়েছে। পাল্টা হেমন্ত বিশ্ব শর্মা জানিয়েছেন শেখ হাসিনার শুভেচ্ছা তাঁর কাছে অত্যন্ত মূল্যবান। তিনি বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রীকে শ্রদ্ধা করেন। হেমন্ত বিশ্ব শর্মা আরও বলেছেন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর মতাদর্শ মেনেই তিনি পথ চলবেন। ভারত ও বাংলাদেশের সম্পর্কের উন্নয়নে বিশেষ লক্ষ্য দেবেন তিনি। দুটি দেশ যাতে ঐক্যবদ্ধভাবে তলতে পারে সেই ব্যবস্থা করাই তাঁর লক্ষ্য হবে। 

দিদির দেওয়া ফুটবল উপহার, অভিনব কায়দায় সংবর্ধনা নারায়ণগড়ের বিধায়ক সূর্যকান্ত অট্টকে ...

শনিবার 'সন্ত্রাস বিধ্বস্ত' নন্দীগ্রাম সফরে রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়, প্রাকাশ করলেন সফরসূচি ...

বছর শেষের আগে ভারতের হাতে ৮টি করোনা টিকা, অগাস্ট থেকে কাটতে পারে সংকট ...
ভারতের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্কের উন্নয়নে বর্তমানে জোর দিয়েছে দুটি দেশ। ভারত বাংলাদেশকে করোনাভাইরায়ের টিকা দিয়েছিল। পাল্টা ভারতের করোনার দ্বিতীয় ঢেউ আছড়ে পড়ার পরে সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিয়েছে। সাহায্য হিসেবে পাঠিয়েছিল করোনা চিকিৎসার সরঞ্জাম ও রেমডেসিভিরসহ নানান ওষুধ। দুটি দেশ দ্বিপাক্ষিক বাণিজ্যসহ একাধিক বিষয়ে জোর দিয়েছে। বাংলাদেশের স্বাধীনতার  ৭০ বছর পূর্তী উপলক্ষ্যে দুটি দেশ যৌথ কর্মসূচিওগ্রহণ করেছিল। করোনা মহামারির কারণে গত এক বছরে বিদেশ সফরে যাননি প্রধানমন্ত্রী। কিন্তু প্রতিবেশী দেশের বিশেষ অনুষ্ঠানে তিনিও বাংলাদেশ সফরে গিয়েছিলেন। আগামী দিনে বাণিজ্য তথ্য প্রযুক্তিসহ বেশ কয়েকটি ক্ষেত্রে যৌথ কর্মসূচি গ্রহণ করার পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে।