Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Nusrat-Nikhil Divorce: 'জন্মদিনের সেরা উপহার', নুসরতের সঙ্গে বিচ্ছেদ মামলায় জয়ী হয়ে খুশি নিখিল

নিখিল জানিয়েছেন, যেদিন থেকে তিনি জানতে পেরেছিলেন যে নুসরত তাঁর সঙ্গে নয়, অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চান। সেদিনই সিভিল কোর্টে ম্যারেজ অ্যানালমেন্ট অ্যাক্টে মামলা দায়ের করেছিলেন। অবশেষে আজ সেই মামলায় জয় পেলেন তিনি। 

best birthday gift Nikhil happy for won in divorce case bmm
Author
Kolkata, First Published Nov 17, 2021, 10:52 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

অবশেষে বিতর্কের অবসান। টলি অভিনেত্রী তথা সাংসদ নুসরাত জাহানের (Nusrat Jahan) বিরুদ্ধে করা বিবাহ বিচ্ছেদের মামলায় জয়ী হলেন নিখিল জৈন (Nikhil Jain)। প্রায় গত বছর থেকেই তাঁদের সম্পর্ক নিয়ে টানাপোড়েন চলছিল। অনেক দিন ধরেই আর নুসরতের সঙ্গে থাকছিলেন না নিখিল। অবশেষে চলতি বছরের জুন মাসে নিজেদের সম্পর্ক নিয়ে মিডিয়ার সামনে মুখ খোলেন তাঁরা। বিস্ফোরক মন্তব্য করতে দেখা যায় তাঁদের দু'জনকে। নিখিল জানিয়েছেন, যেদিন থেকে তিনি জানতে পেরেছিলেন যে নুসরত তাঁর সঙ্গে নয়, অন্য কারও সঙ্গে থাকতে চান। সেদিনই সিভিল কোর্টে বিবাহ বিচ্ছেদের (Divorce Case) মামলা দায়ের করেছিলেন। অবশেষে আজ সেই মামলায় জয় পেলেন তিনি। 

আলিপুর আদালতের (Alipore Court) তরফে বলা হয়েছে, এই বিয়ের কোনও আইনি বৈধতা নেই। আর যে বিয়ের আইনি বৈধতা নেই তাতে আইনগতভাবে রায় দেওয়ার কিছুই নেই। স্পেশাল ম্যারেজ অ্যাক্টের (Special Marriage Act) সিলমোহরের প্রয়োজন ছিল যেটা মানা হয়নি। ফলে তুরস্কে নিখিল ও নুসরতের যে বিয়ে হয়েছিল তা আইনিভাবে বৈধ নয়। তাছাড়া এই সম্পর্ক তারা কেউই টিকিয়ে রাখতে চান না। এদিকে নিজের জন্মদিনের দিনই এই রায় আসায় বেজায় খুশি নিখিল। এই রায় প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "বিচার ব্যবস্থার প্রতি আস্থা ছিল। এই জয় জন্মদিনের সেরা উপহার।" 

আরও পড়ুন- বৈধতা না মেনেই একসঙ্গে গৃহযাপন, নুসরত-নিখিলের বিয়েকে পার্টি বলল আদালত

প্রসঙ্গত, ২০১৯ সালের ১৯ জুন নিখিল জৈনের সঙ্গে তুরস্কে আনুষ্ঠানিক বিয়ে সেরেছিলেন নুসরত। এরপর জুন মাসে কলকাতায় বসেছিল তাঁদের বৌভাতের আসর। সেই অনুষ্ঠানে নুসরত ও নিখিলকে আর্শীবাদ করতে পৌঁছে গিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও। এরপর সরকারি বেসরকারি নানা অনুষ্ঠানে এক সঙ্গেই দেখা যেত তাঁদের। এমনকী, পুজোর দিনগুলিতেও একই সঙ্গে মণ্ডপে দেখা গিয়েছিল। তা নিয়েও অনেক বিতর্ক হয়েছে। কিন্তু, বছর না ঘুরতেই বদলে যায় সেই ছবি। যারেক এন্টারটেনমেন্টে প্রযোজিত প্রথম ছবি 'এসওএস কলকাতা'-এ অনেক বছর পর অভিনয় করেন নুসরত, যশ ও মিমি। আর সেখান থেকেই নাকি যশের সঙ্গে নুসরতের সম্পর্ক তৈরি হয়। তারপর থেকেই তাঁদের মধ্যেকার সম্পর্কের চির স্পষ্ট হয়ে ওঠে। এমনকী, নুসরত ও যশকে একসঙ্গে ঘুরতে যেতেও দেখা গিয়েছিল। যদিও এই বিষয় নিয়ে তাঁরা কেউই প্রকাশ্যে কোনও মন্তব্য করেননি। 

আরও পড়ুন- বিয়েকে মান্যতাই দিল না আদালত, নুসরতের বিরুদ্ধে বিচ্ছেদ মামলায় জয় নিখিলের

গত জুন মাসে একটি বিবৃতি জারি করেছিলেন নুসরত জাহান। তিনি বলেছিলেন, "তুরস্কের বিবাহ আইন অনুসারে ওই বিয়েটা অবৈধ। তার উপর এটা যেহেতু হিন্দু-মুসলিম বিয়ে সেক্ষেত্রে বিশেষ বিবাহ আইন অনুসারে এই বিয়েতে স্বীকৃতি দরকার। যেটা হয়নি।" এরপরই দুই পক্ষকে একে অপরের বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাতে দেখা গিয়েছিল। যদিও নিখিল জানান, এর আগেই নাকি তিনি নুসরতের বিরুদ্ধে মামলা করেছিলেন। অবশেষে জন্মদিনের দিনই সেই মামলায় জয়ী পেলেন তিনি। 

আরও পড়ুন- 'মাস্টারমশাই আপনি কিছু দেখেননি', আবার কী করে বসলেন যশ-নুসরত

এদিকে চলতি বছরের অগাস্টেই নুসরতের কোল আলো করে এসেছে ঈশান। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছেলের সঙ্গে কাটানো মুহূর্তের ছবিও পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। আপতত যশ, ঈশান,  শুটিং আর রাজনীতি নিয়েই ব্যস্ত রয়েছেন তিনি। অন্যদিকে, পুরোনো তিক্ত অভিজ্ঞতা ভুলে নিখিলও কাজে ডুব দিয়েছেন। কিছুদিন আগেই শহরের একটি পাবে টলি তারকাদের উপস্থিতিতে পুরুষদের জন্য নতুন পোশাকের কালেকশন লঞ্চ করেছেন তিনি।

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios