বুদ্ধদেব পাত্র, পুরুলিয়াঃ- করোনার মাঝেই পুরুলিয়ার পথে পা বাড়ালেন টলিউড অভিনেতা বিশ্বনাথ বসু। করোনা কাটিয়ে এখনও স্বাভাবিক হয়নি পরিস্থিতি, এমন অবস্থায় ভ্রমণ! বিশ্বনাথের সাফ উত্তর, 'বাড়ির থেকে এখানে অনেক বেশি সুরক্ষিত রয়েছি। বাড়িতে মানুষের আসা যাওয়া রয়েছে, এখানে বরং মানুষের সঙ্গে কম সাক্ষাৎ হয়। দুই সন্তান তাঁরা প্রায় খেলতে চায়, ওদের মুখের দিকে তাকিয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া। '

আরও পড়ুনঃ হৃদরোগে আক্রান্ত হয়ে প্রয়াত জনপ্রিয় পরিচালক রানা সেন, শোকস্তব্ধ টলিপাড়া

প্রতিবছরই বিশ্বনাথ মে মাসে পরিবারের সঙ্গে ভ্রমণে বেড়িয়ে পড়েন। কিন্তু চলতি বছর তালিকাতে নেই কোনও বিদেশের নাম, তাই হাতের কাছে পুরুলিয়াকেই তিনি বেছেনিলেন, জানালেন- 'পুরুলিয়া তাঁর কোনও দিন ভালোভাবে দেখা হয়নি, এইবার দেখবেন। খুব সুন্দর জায়গা, চারিদিকে সবুজ, করোনা আতঙ্কও কম। একজন দুবেলা তাঁদের খাবার দিয়ে আসেন মাত্র'। ভয় নয়, সাবধানতা অবলম্বণ করেই বাড়ি থেকে বেড়িয়ে পড়েছেন বিশ্বনাথ। 

বিদেশ সফর অনেক হত, তাই এবার তিনি বেছে নিয়েছেন বাড়ির সামেন থাকা পুরুলিয়া, সেখানের সাধারণ মানুষ শহরের থেকে অনেক আলাদা, ঘন সবুজের ঘ্রাণ প্রাণ খুলে উপভোগ করছেন তিনি সপরিবারে। ঘুরেও দেখছেন এদিক-ওদিক, গাড়ি নিয়ে বেরোনো, তারপর একটা ফাঁকা জায়গা দেখে সেখানে দাঁড়িয়ে পড়া। তিনি তো অভিনেতা, কেউ যদি তাঁকে দেখে মনে করেন বেড়িয়ে আসা যাক, তবে সেক্ষেত্রে কোথায় যাচ্ছেন, সেখানে সুরক্ষা কেমন, অনুমতী আছে কি না তা ক্ষতিয়ে দেখার কথা মনে করিনেয় দিলেন বিশ্বনাথ। 

'করোনা এমন এক সমস্যা, যা বিশ্বনাথের কথায় মেনে নেওয়া যায় না, কিন্তু যুদ্ধ চালিয়ে যেতেই হবে।' প্রতিদিন একটা কাজ থেকে নিজেকে বিরত রাখেন বিশ্বনাথ, তা হল মৃত্যের সংখ্যা গোনা। তিনি কখনই ভাবেন না এমন পরিস্থিতি তাঁর হতে পারে। তাই খোস মেজাজেই পুরুলিয়াতে সময় কাটছে তাঁর। জানান, জিৎ-এর সঙ্গে তাঁর দীর্ঘক্ষণের কথা হয়, জিৎ-ই তাঁকে জানিয়েছিলেন যে পুরুলিয়া খুব সুন্দর জায়গা। এখন তিনি তা চাক্ষুস করলেন।