পশ্চিমবঙ্গে প্রত্যন্ত এক গ্রাম পলাশবণি। সেখানকার মেয়ে বাহামণি সোরেন। মা কঙ্কা এবং সৎ বাবা সত্যকামের কাছে মানুষ হয়েছে সে। প্রত্যন্ত গ্রামের মেয়ে হলেও পড়াশোনায় রীতিমত এগিয়ে বাহা। সাংবাদিক অর্চিষ্মান মুখোপাধ্যায় সেই গ্রামে এসে কাজ করার পরই ঘুরে যায় গল্পের মোড়। বাহামণির সঙ্গে রাতারাতি বিয়ে, কলকাতায় বাহাকে নিয়ে আসার পর সে এক ভিন্ন গল্প, টানটান উত্তেজনা। বাংলা ধারাবাহিক 'ইষ্টি কুটুম' নিয়ে দর্শকদের মধ্যে উন্মাদনা ছিল তুঙ্গে। 

২০১১ সালের এই ধারাবাহিক সেই সময় টিআরপি রেটিংয়ে রীতিমত টেক্কা দিয়েছিল অন্যান্য ধারাবাহিকগুলিকে। অভিনেত্রী রণিতা দাস এবং অভিনেতা ঋষি কৌশিকের রসায়নে মন ভরেছিল বাংলার দর্শকের। বাহা এবং অর্চির প্রেমকাহিনির দাপট এবার হিন্দিতেও। 'ইষ্টি কুটুম'র হিন্দি রিমেক নিয়ে এসেছে 'ইমলি'। যা এক মাস আগেই শুরু হয়েছে সম্প্রচারিত হওয়া। তার মধ্যেই টিআরপির দৌড়ে পিছনে ফেলে দিয়েছে একাধিক পুরনো ধারাবাহিককে। টিআরপির তালিকায় চতুর্থতে নাম রয়েছে 'ইমলি'র। 

আরও পড়ুনঃশাহরুখ ছিল 'জিয়া'র প্রথম প্রেম, এখনও সেই মিষ্টি হাসিতেই নেটদুনিয়ার হটকেক ঝনক

 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 
 

A post shared by StarPlus (@starplus)

 

বাংলা ধারাবাহিকের গল্পের দাপটই কি তবে সবচেয়ে বেশি হিন্দি টেলিভিশনেও। এর আগে 'তোমায় ছাড়া ঘুম আসে না মা', 'পটলকুমার গানোয়ালা', 'শ্রীময়ী' ধারাবাহিকের হিন্দি রিমেক তৈরি করা হয়েছে। প্রতিটি ধারাবাহিকই টিআরপি-র দৌড়ে হিন্দির অরিজিনাল কনটেন্টগুলিকে পিছনে ফেলে দিয়েছে। বাহা-অর্চির রসায়ন হোক, বা পটলকুমারের গান অথবা শ্রীময়ীর অদম্য লড়াই, হিন্দির দর্শকরাও বাংলা কনটেন্টকেই বেশি আপন করে নিয়েছে এই কয়েক বছরে। ইমলির ধারাবাহিকের মূল ভূমিকায় রয়েছেন গাশমির মহাজনি, সম্বল তৌকীর। ইমলি ও আদিত্যের চরিত্রে অভিনয় করছেন তাঁরা।