টলিউড অভিনেত্রী তথা সাংসদ সদ্যই অধিবেশন শেষ করে কলকাতায় ফিরেছেন। নিজে একা নন, এবার মাকেও সংসদ ভবন দেখাতে নিয়ে গিয়েছিলেন অভিনেত্রী। অভিনয়ের পাশাপশি সমাজসেবাতেও বেশি আগ্রহ রয়েছে অভিনেত্রীর। সমাজসেবার মধ্যে পশুপ্রেমী হিসেবেও তিনি পরিচিত। এইবার পথকুকুরদের নিরাপত্তা নিয়ে কেন্দ্রীয় আইন প্রণয়নের দাবি জানালেন তৃণমূল সাংসদ মিমি চক্রবর্তী। অবলা কুকুরদের প্রতি দিনের পর দিন যেভাবে অত্যাচার, নির্যাতন করা হয়ে থাকে সেই নিয়ে সরব হয়েছেন মিমি এবং তার সংক্ষিপ্ত বিবরণও তুলে ধরেছেন লোকসভায়।

আরও পড়ুন-শরীরী হিল্লোলে সমুদ্রের পাড়ে উষ্ণতা ছড়াচ্ছেন এই বঙ্গ তনয়া, দেখুন ভিডিও...

বক্তব্য জানাতে গিয়ে মিমি জানিয়েছেন, আমাদের দেশের রাস্তার কুকুরদের নির্যাতন বন্ধ করার জন্য কোনও আইন নেই। দিনের পর দিন তাদের সঙ্গে অকথ্য অত্যাচার চলেই আসছে। তাদের চিকিৎসা, টিকাকরণ কোনও কিছু নিয়ে সঠিক কোন ব্যবস্থা নেই। ঠিক মতো খাবার, জল কোনও কিছুই তাদের দেওয়া হয় না। তার বদলে দিনের পর দিন চলতে থাকে অত্যাচার। এই সব অত্যাচার বন্ধ করার জন্য কেন্দ্রীয় সরকারকে কড়া আইন প্রণয়ণের অনুরোধ জানিয়েছেন তিনি। নিজের ট্যুইটার হ্যান্ডেলেও বেশ কয়েকটি ছবি পোস্ট করেছেন অভিনেত্রী। যেখানে দেখা যাচ্ছে, রাস্তার অবলা কুকুরদের পরম যত্নে নিজের হাতে তুলে নিয়েছেন তিনি। তার অফিসের পাশ থেকেই সেই কুকুর ছানাদের উদ্ধার করেছেন তিনি। সদ্যই তারা তাদের মা কে হারিয়েছে এবং নতুন আশ্রয় খুঁজে পেয়েছে। দেখে নিন ছবিগুলি।

সদ্যই কলকাতা ফিরেছেন অভিনেত্রী সাংসদ মিমি। কলকাতা ফিরেই তিনি বেরিয়ে পড়েছেন খড়গপুরের উপনির্বাচনের প্রচারে। প্রচারে গিয়ে মিমি জানান, রবিবারেও ফুসরত মেলে না মিমির। দিদিকে দেখে ভোট দেওয়ার জন্য সকলকে অনুরোধ জানান তিনি। একদিকে নিজের অফিসের কাজ, অন্যদিকে এলাকার মানুষদের সঙ্গে কথা বলা, তারপর পথকুকুরদের নিয়ে নানা কর্মসুচীর মধ্য দিয়েই কাটে তার রবিবার।