ফিগার হোক কিংবা ফোটোশ্যুট টলিপাড়ার অভিনেত্রীরা একের পর এক ছক্কা হাঁকাচ্ছেন। তাদের স্টাইল স্টেটমেন্টে হার মানছে বলি সুন্দরীরাও। সেই তালিকায় নিঃসন্দেহে রয়েছেন সাংসদ-অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী। প্রচলিত ট্যাবু ভেঙে বরাবরই তিনি গর্জে ওঠেন। একাধারে অভিনেত্রী অন্যদিকে সাংসদ, টলিপাড়ার অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী সমান তালে সবটা চালিয়ে যাচ্ছেন। কিন্তু সাংসদ অভিনেত্রীর এহেন অবতার দেখেই হতবাক সকলেই।

আরও পড়ুন-অমিতাভকে টপকে এগিয়ে 'বেবি ডল', ২০২০-র গুগল সার্চে টপ মোস্ট ১০ সেলিব্রিটির তালিকা...

যাদবপুরের মেয়ে আবার নিজের এলাকারই সাংসদ। সবসময়েই এলাকাবাসীর পাশে থেকেছেন মিমি চক্রবর্তী। সম্প্রতি রাজ্য সরকারের 'দুয়ারে দুয়ারে সরকার' কর্মসূচীর প্রচারে গতকাল হাজির হয়েছিলেন পাটুলিতে। সেখানেই নিজের মানবিকতাকে উজার করে দিলেন সাংসদ অভিনেত্রী। রাস্তায় নেমে সাধারণ মানুষের সাহায্যে এগিয়ে এলেন মিমি।

আমরা বলে থাকি বয়স কেবল একটি সংখ্যা মাত্র, কিন্তু সেটি আসলে নয়। একদিন আমরাও বয়স্ক হব এবং একটি সাহায্যের হাতের আমাদের‌ও...

Posted by Mimi Chakraborty on Thursday, December 10, 2020

 

কলকাতা পৌরসভার ১১০ নম্বর ওয়ার্ডের মানুষদের অভাব-অভিযোগ শুনলেন নিজে দাঁড়িয়ে থেকে। এবং পাটুলি এলাকার এক বর্ষীয়ান মহিলাকে সাহায্য করলেন নিজ হাতে। এবং শুধু তাই নয় নিজের সোশ্যাল মিডিয়ায় 'দুয়ারে দুয়ারে সরকার' কর্মসূচীর মাধ্যমে ভালবাসা ছড়িয়ে দিয়ে মিমি লিখেছেন, 'আমরা বলে থাকি বয়স কেবল একটি সংখ্যা মাত্র, কিন্তু সেটি আসলে নয়। একদিন আমরাও বয়স্ক হব এবং  একটি সাহায্যের হাতের আমাদের‌ও প্রয়োজন হবে, আপনার সাথে অন্যরা কীভাবে আচরণ করবে সেটা আপনার আচরণ‌ই বলে দেবে। তাই নিজের মতো করে ভালোবাসা ছড়িয়ে দিন'। এই কর্মসূচী ইতিমধ্যেই ব্যাপক সাড়া ফেলেছে। এবার তা নিজেই খতিয়ে দেখতে পৌঁছে গেলেন সাংসদ অভিনেত্রী মিমি চক্রবর্তী।