একটা ছবি তৈরি মানে এক কথায় হাজার ঝক্কি। তবুও ছবি ঘিরে আশায় বুক বেঁধে থাকেন পরিচালক। দিন রাত্রী  কেটে যায় তাঁর ফ্রেম, লুক, উপস্থাপনা নিয়ে কল্পনায়। তবে ছবিকে যে কত রকমভাবে ভেঙে গড়া যায় তার পাঠ পড়িয়ে গিয়েছেন সত্যজিৎ রায়। আস্ত একটা ছবির শ্যুটিং হয়ে গেল বাড়ির চার দেওয়ালের মধ্যেই। রইল না কোনও আউটডোর শ্যুট, রইল না বাইরের দৃশ্য, তবুও স্বপ্নের মতই পরিচালক বুনেছিলেন চারুলতা। 

আরও পড়ুনঃ শেষের দিকে ২ মে গা ঢাকা দিতেন সত্যজিৎ রায়, কীভাবে নিজের জন্মদিন পালন করতেন পরিচালক

চারুলতা গল্পটি সত্যজিৎ রায় নিয়েছিলেন রবীন্দ্রনাথ ঠাকুর রচিত নষ্টনীড় থেকে। এই গল্পে তথাকথিত সমাজে এক নারীর অগ্রণী ভুমিকাই ফুঁটে উঠেছিল পরতে-পরতে। উপন্যাস থেকে চারুলতা যখন পর্দায় প্রাণ পেল, তখন তা সকলের নজরে এক উদাহরণ হয়ে রইল। চারদেওয়ার মধ্যে থেকেও যে শিক্ষার আলোতে আলোকিত হওয়া যায়, তা যেমন প্রমাণ করেছিল এই চরিত্র, ঠিক তেমনটাই প্রমাণ করেছিলেন সত্যিজৎ রায়, চার দেওয়ালের মধ্যেও এক ছবি পরিপূর্ণতা পায়। 

আরও পড়ুনঃ শতবর্ষে কিংবদন্তি চলচ্চিত্রকার সত্যজিৎ রায়, শ্রদ্ধাজ্ঞাপনে মাতল বাঙালি

সত্যজিৎ রায়ের ছবি মানেই তা থেকে এক নতুন কিছু পাওয়া। প্রতিটা ছবিতেই এক বিশেষত্বের ছাপ রেখেযেতেন তিনি। ফ্রেম থেকে শুরু করে চরিত্র, সংলাপ থেকে শুরু করে মেকআপ, নিজের সবটুকু ঢেলে তৈরি করতেন এক একটি ছবি। যা পরবর্তীতে এক উদাহরণ হয়ে রয়েগিয়েছে। মাধবী মুখোপাধ্যায়ের অভিনয় যেমন এই ছবিকে রসদ জুগিয়েছে, ঠিক তেমনই সত্যজিৎ রায়ের উপস্থাপনার পদ্ধতিতে তা পরিপূর্ণতা পেয়েছে। বাড়ির মধ্যে বন্দি থেকে এমনই ছবির উপস্থাপনা এখনও পর্যন্ত টলিউডে আর দেখা যায়নি।  

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা