করোনার প্রকোপ ক্রমশ বাড়ছে। লাইট-ক্যামেরা-অ্যাকশন থেকে দূরে থাকলেও ক্রমশ বাড়ছে উৎকন্ঠা। তবে সিনেমার জন্য নয়, নতুন অতিথির জন্য আর অপেক্ষা করতে পারছেন না রাজ-শুভশ্রী। আর মাত্র কয়েকদিন। তারপরেই রাজের পরিবারে আসতে চলেছে নয়া সদস্য়। আর সেই কারণেই বদলে গিয়েছে রোজনামচা। 

আরও পড়ুন-বনশালী ও আদিত্যের বয়ানে আকাশ-পাতাল তফাত, সুশান্ত মৃত্যু-মামলায় আরও দৃঢ় হল সন্দেহ...

লকডাউনের মধ্যেও টলিপাড়ায় খুশির খবর।  মা হতে চলেছেন টলি অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলী। দ্বিতীয় বিবাহবার্ষিকীর দিনে সুখবর জানিয়েছিলেন টলি অভিনেত্রী শুভশ্রী গাঙ্গুলী এবং পরিচালক রাজ চক্রবর্তী । সেপ্টেম্বর মাসের শেষের দিকেই আসতে চলেছে সেই মাহেন্দ্রক্ষণ। নতুন অতিথির জন্যই  মাদার টু বি- শুভশ্রীর  দেখভালে মত্ত গোটা পরিবার। লকডাউনে সারাক্ষণই শুভশ্রীর পাশে রয়েছেন রাজ। এককথায় বলতে গেলে পরিবারের  সকলের কড়া নজরে রয়েছেন রাজ ঘরণী। শাশুড়ির যত্নও যেন বেড়েছে দ্বিগুণ। হবু সন্তানের কথা মাথায় রেখে রোজনামচার ভোলবদল হয়েছে শুভশ্রীর। 

আরও পড়ুন-'পরণে শাড়ি, হাতে উঠেছে শাখা- পলা', বাঙালি বধূর লুকে নেটিজেনদের নজরে সৃজিত ঘরণী মি...

সূত্র থেকে জানা গেছে, বাড়ির সকল সদস্যকাই এখন গলার স্বর অনেকটাই নিচু করে ফেলেছেন। কেউই আর উচু গলায় কথা বলছে না। বাড়িতে চেঁচামেচি বন্ধ। ফোনে কথা বলা অনেকটাই কমেছে। বাড়িতে সারাদিন চলছে ভাল গান, সিনেমা, সেই সঙ্গে চলছে বই পড়া। সন্তানের কারণে সারাক্ষণ একটা আনন্দের পরিবেশ তৈরি করার প্রচেষ্টা চলছে। ঘুম থেকে উঠে সকালে হাসি, ঠাট্টা চলছে।  খাওয়া-দাওয়াতে চলছে বিশেষ নজরদারি। তার উপর হবু সন্তানের জন্য একগুচ্ছ প্ল্যান রয়েছে তাদের। কীভাবে তাকে ভাল রাখা যায় এই নিয়ে সারাদিন আলোচনা চলছে। হবু সন্তান যেন শুভ-র মতোন ধৈর্য্যশীল হয়, এমনকী দেখতেও যেন শুভশ্রীর মতোন নয়, ইচ্ছা রাজের।