আবারও নক্ষত্রপতন। প্রয়াত হলেন পদ্মশ্রী পুরস্কার প্রাপ্ত ফ্যাশন ডিজাইনার ওয়েন্ডেল রডরিক্স। গতকালই নিজের বাড়িতেই দেহ রাখেন ওয়েন্ডেল। সূত্র থেকে জানা গিয়েছে হৃদরোগে আক্রান্ত হয়েই তিনি মারা গেছেন। মাত্র ৫৯ বছর বয়সে  ওয়েন্ডেলের প্রয়াণে শোকের ছায়া নেমে এসেছে বলিমহল তথা গোটা ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে।

আরও পড়ুন-প্রয়াত ফ্যাশন ডিজাইনার ওয়েন্ডেল রডরিক্স, শোকের ছায়া ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে...

ওয়েন্ডেলের অকাল প্রয়াণে  বলিউডের জনপ্রিয় অভিনেত্রী অনুষ্কা শর্মা গভীর ভাবে শোকাহত  । যার অনুপ্রেরণায় মুম্বইয়ে আসা , আজ সে নেই ভাবতেও অবাক লাগছে। কোনওভাবেই যেন বিশ্বাস হচ্ছে না । অনুষ্কা ওয়েন্ডেলের অকাল প্রয়াণে লিখেছেন, ' নিউজিল্যান্ডে আছে। সকালবেলা ওয়েন্ডেলের মৃত্যুর খবর পেয়ে স্তম্ভিত। পুরোনো সব কিছু মনে পড়েছে। বেঙ্গালুরুতে এক ফ্যাশ শো-তে আমি অংশগ্রহন করেছিলাম। তখন সদ্যই ফ্যাশন ইন্ডাস্ট্রিতে এসেছি। ওয়েন্ডেলই আমায় বলেছিল মুম্বইয়ে চলে আসতে। আমাকে সাহস জুগিয়েছিল। তুমি আজ নেই। কোনওভাবেই যেন বিশ্বাস হচ্ছে না । কিন্তু তুমি সারাজীবন আমার মনে রয়ে যাবে। '

 


নব্বইয়ের দশক। সেই তখনকার সময়ে উত্থান হয়েছিল এই ফ্যাশন ডিজাইনারের। দেশ থেকে বিদেশেও কাজ করেছেন বহু। বলিউডেও প্রথমসারির অভিনেত্রীদের পোশাকই ছিল তার হাতে ডিজাইন করা। শুধু ডিজাইনই নয় বিভিন্ন কাজের  জন্য ভূয়সী প্রশংসাও কুড়িয়েছেন ডিজাইনার ওয়েন্ডেল। রিসর্ট ওয়্যার থেকে মিনিমালিজম, ইকো ফ্রেন্ডলি পোশাকে তার ভূমিকা গুরুত্বপূর্ণ। 

ফ্যাশন জগতের অভিনব স্টাইলিশ ফ্যাশনের জুড়ি মেলা ভার ছিল  রডরিক্সের। তবে শুধু ফ্যাশন ডিজাইনার হিসেবে নয়, সমাজকর্মী হিসেবেও যথেষ্ঠ সুনাম ছিল রডরিক্সের। এছাড়া সমকামীর অধিকার এবং পরিবেশ রক্ষা নিয়েও রীতিমতো সরব ছিলেন তিনি। নিজের কাজের বাইরেও এই কজগুলি করতে ভালবাসতেন ওয়েন্ডেল। পদ্মশ্রী সম্মানও পেয়েছেন ওয়েন্ডেল।