বি-টাউনের হট কাপলস বললেই একটাই নাম সবার আগে মাথায় আসে। তারা হলেন দীপিকা পাড়ুকোন এবং রণবীর সিং। দীর্ঘদিন নিজেদের সম্পর্ককে একপ্রকারের আড়ালেই রেখেছিলেন এই জুটি। চোখের পলক সড়তে না সড়তেই কেটে গেল এক বছর। আবার এসে উপস্থিত সেই রাজকীয় দিন। গতবছর ১৪ নভেম্বর ইতালির লেক কেমোতে রাজকীয় বিয়ের আসর বসেছিল দীপিকা-রণবীরের। তারপরের দিন আবার উত্তর ভারতীয় মতে বিয়ে সারেন তারা।  খুব ঘনিষ্ঠ আত্মীয়দের নিয়েই বসেছিল সেই বিয়ের আসর।  তারপর সেই বিয়ের রেশ আর ও বিভিন্ন শহরেও ছিল। যা সকলেরই জানা।

আরও পড়ুন-'গাছ লাগান প্রাণ বাঁচান', জন্মদিনে এমনই বার্তা জুহির...

আগামীকালই তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী। আর রাজকীয় বিয়ের সেই স্মৃতি ফিরে দেখতে আবারও রয়েছে বিশেষ পরিকল্পনা। বিয়ের পর থেকেই যে কোনও অনুষ্ঠান কিংবা বিশেষ কোনও অনুষ্ঠানে বরাবরই নিজেদের মতোন করে সেলিব্রেট করেছেন এই যুগল। এবারও তেমনটাই হচ্ছে বলে শোনা যাচ্ছে।  তবে ব্যক্তিগত ভাবে নয়, বা সবাইকে ছেড়ে একা নিভৃতযাপন নয়, পরিবারের সকলের সঙ্গেই এই দিনটিকে সেলিব্রেট করছেন তারা। 

আরওপড়ুন-সঙ্কটে সুর সম্রাজ্ঞী, জীবনদায়ী ব্যবস্থায় চলছে শ্বাস-প্রশ্বাস...

পাড়ুকোন এবং ভবনানী পরিবার একসঙ্গে কয়েকটি ধর্মীয় স্থানে যাবেন। আগামীকাল প্রথমে যাবেন তিরুপতি মন্দিরে। সেখান থেকে তারা যাবেন অন্ধ্রপ্রদেশের পদ্মাবতী মন্দিরে। আর সেখান থেকে ১৫ নভেম্বর তারা যাবেন অমৃতসরের মন্দিরে। অমৃতসর মন্দিরের পরিবারের বাকি সদস্যদের নিয়ে  অনুষ্ঠিত হবে তাদের প্রথম বিবাহবার্ষিকী। তারপর সকলে মুম্বাই ফিরে আসবেন। প্রথম বিবাহবার্ষিকীতে উত্তর ও দক্ষিণী সংস্কৃতির মেলবন্ধন ঘটবে। আপাতত জ্বরে কাবু হয়ে রয়েছেন দীপিকা। সম্প্রতি বন্ধুর বিয়ের আনন্দেই তার এই অবস্থা হয়েছে। নিজের ইনস্টাগ্রাম স্টোরিতে ছবি পোস্ট করে নিজেই জানিয়েছেন তিনি।