ছোট থেকেই অভিনয় জগতে পা রাখার ইচ্ছে ছিল ইরফানের। সংসারে অভাব থাকলেও বিন্দুমাত্র পিছু পা হননি ইরফান খান। অভিনয় তিনি করবেন ছোট থেকেই তা স্থির করেছিলেন। বন্ধুদের ব্যঙ্গ, কিংবা পরিবারের আর্থিক পরিস্থিতি কোনও কিছুকেই তোয়াক্কা করেননি এই সুপারস্টার। তবে তখন তিনি ছিলেন নেহাতই এক নিম্নবিত্ত পরিবারের ছেলে। যেখানে দুবেলা কীভাবে চালবে সংসার তা নিয়েই চিন্তার ভাঁজ পড়ত তাঁর মা-বাবার কপালে।

আরও পড়ুনঃ গর্ভধারিনীর মৃত্যুর পরেই ভর্তি হতে হয়েছিল আইসিইউতে, মা-ছেলের ফের দেখা হল জীবনের ওপারে

পরিস্থিতি ক্রমেই জটিল হয়ে আসছিল। তখনও সময় ছিল লেখা পড়া করে মা-বাবার স্বপ্নপূরণ করার, কিন্তু তাঁর নজরে থাকত পড়া নয়, কেবলই পরীক্ষা। পড়তে ভালো না লাগলেও পরীক্ষা দিতে তিনি ভিষণ পছন্দ করতেন। কারণ ছিল একটাই, পরীক্ষা শেষ হত বেলা এগারোটাতে। আর তখনই তিনি ছুঁটে যেতেন সিনেমা দেখতে। তাঁর প্রিয় অভিনেতা ছিলেন দুই, নাসিরুদ্দিন শাহ ও দীলিপ কুমার। 

এই দুই তারকাকে দেখেই অভিনয় জগতে পা রাখার ইচ্ছে প্রকাশ করেছিলেন ইরফান। স্বপ্ন দেখতেন একদিন তিনিও রাজত্ব করবেন বলিউডে। তবে এখনও অনেকটা পথ চলার বাকি ছিল। ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন তিনি ২০১৮ সাল থেকে। তখনও পর্যন্ত হাল ছাড়েননি অভিনেতা। জানিয়ে ছিলেন এখনই সব শেষ নয়। অথচ তাঁর চোখের সব স্বপ্ন মলিন হয়ে গেল তাঁর মায়ের মৃত্যুতে। 

করোনা মোকাবিলায় রক্ষা করুন নিজেকে, মেনে চলুন 'হু' এর পরামর্শ

সাবধান, করোনা আতঙ্কের মধ্যে এই কাজ করলেই হতে পারে জেল

কী করে করোনার হাত থেকে রক্ষা করবেন আপনার বাড়ির বয়স্ক সদস্যদের, রইল তারই টিপস

শরীরে কীভাবে থাবা বসায় করোনা, জানালেন বিশেষজ্ঞরা