গ্রিনজোনের তকমা ঘুচে গিয়েছে। করোনা সংক্রমণ ছড়াচ্ছে পূর্ব বর্ধমানেও। মেমারিতে এবার আক্রান্ত হলেন কলকাতা ফেরত যুবক। তাঁকে ভর্তি করা হয়েছে দুর্গাপুরের কোভিড হাসপাতালে। আক্রান্তের বাবা, মা, দিদি, বাবার বন্ধু ও এক অ্যাম্বুল্যান্স চালককে পাঠিয়ে দিয়েছে প্রশাসন। সিল করে দেওয়া হয়েছে এলাকা।

আরও পড়ুন: রেড জোন মালদহে আরও ৪ করোনা আক্রান্তের হদিস, আতঙ্কে জেলার মানুষ

বছর বাইশের ওই যুবকের বাড়ি মেমারির পুরসভার সোমেশ্বরতলা এলাকায়। কিডনির সমস্যায় ভুগছিলেন তিনি। জানা গিয়েছে, কলকাতায় বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি ছিলেন ওই যুবক। হাসপাতাল থেকে ছাড়া পান বুধবার। তার আগে অবশ্য করোনা পরীক্ষার জন্য় তাঁর লালারস সংগ্রহ করা হয়। শুক্রবার করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসে। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে নিয়েছেন পূর্ব বর্ধমানের মুখ্য স্বাস্থ্য আধিকারিক প্রণবকুমার রায়। আতঙ্ক ছড়িয়েছে এলাকায়। 

আরও পড়ুন: করোনা আক্রান্তের সংখ্যা নিয়ে মমতাকে নিশানা বাবুল সুপ্রিয়র, বললেন মুখ্যমন্ত্রী নিজেকে বিশেষ মনে করেন

আরও পড়ুন: করোনা সংকটে রাজ্য সরকারের ভূমিকায় ক্ষোভ, উত্তরবঙ্গে ধর্না দুই বিজেপি সাংসদের

উল্লেখ্য, দিন কয়েক বর্ধমান শহরে এক নার্সের করোনা সংক্রমণ ধরা পড়ে। কলকাতায় একটি সরকারি হাসপাতালে চাকরি করেন তিনি। ঘটনার দিন তিনেক আগে ছুটি কাটাতে বাড়ি ফেরেন ওই নার্স। এরপর স্বাস্থ্য পরীক্ষা করাতে নিজেই চলে যান হাসপাতালে। তার আগে খণ্ডঘোষে এক ব্যক্তি করোনায় আক্রান্ত হয়েছিলেন। চিকিৎসায় সেরে উঠেছেন তিনি।