ব্যাঙ্ক বনধ থেকে গ্রাহকদের সমস্যা সমাধানে এগিয়ে এল সেন্ট্রাল কোঅপারেটিভ ব্যাঙ্ক। নিজেদের  শাখা ও এটিএম বন্ধ থাকায় বর্ধমানে মোবাইল এটিএম পরিষেবার ব্য়বস্থা করলে তারা। যার জেরে কিছুটা হলেও রেহাই পেল গ্রাহকরা। 

কলকাতায় যাদুঘরের জন্য় বাড়তি বরাদ্দ, তামিলনাড়ুতেও প্রত্নতাত্ত্বিক সংগ্রহশালা

রাষ্ট্রায়ত্ত ব্যাঙ্কের পাশাপাশি বেসরকারি ব্যাঙ্ক বন্ধের জেরে এটিএম পরিষেবা ব্যাহত। অধিকাংশ এটিএম  বন্ধ থাকায় সাধারণ মানুষ সমস্যা বেড়েছে। সেই সমস্যার কথা মাথায় রেখে মানুষের যাতে কোনও অসুবিধায় পড়তে না হয়, তাই  চলমান এটিএম-এর ব্যবস্থা করেছে বর্ধমান সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাংক। বর্ধমান রেলস্টেশন সংলগ্ন এলাকায় একটি মোবাইল ভ্যানে করে এটিএম পরিষেবা দিচ্ছেন তারা। 

২০২৪-র মধ্য়ে ১০০ টি বিমান বন্দর, পরিবহন পরিকাঠামোয় ১.৭ লক্ষ কোটি টাকা বরাদ্দ

বর্ধমান সেন্ট্রাল কো-অপারেটিভ ব্যাংক-এর অ্যাসিস্ট্যান্ট ম্যানেজার অনুপ মন্ডল জানিয়েছেন,জেলায় এই ব্যাঙ্কের এটিএম রয়েছে ৫২টি।  মাইক্রো এটিএম রয়েছে প্রায় ৪০০টি। কিন্তু ব্যাংক ধর্মঘটের জেরে সবই তথৈবচ অবস্থা। কিন্তু বনধের দিনে চলমান এটিএম-এর পরিষেবা পয়ে বেজায় খুশি সাধারণ মানুষ।

শনিবার ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের দ্বিতীয় দিনেও চরম ভোগান্তির আশঙ্কায় গ্রাহকরা৷ ব্যাঙ্ক ইউনিয়নগুলি মজুরি বৃদ্ধির দাবিতে দুদিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘট চলছে দেশ জুড়ে৷ অভিযোগ, এটিএম সহ ব্য়াঙ্ক পরিষেবা পুরোপুরি বন্ধ হওয়ায় গত শুক্রবার থেকেই  চরম হয়রানির শিকার রাজ্য়বাসী। 

বাজেটের দিনেও ব্যাঙ্ক ধর্মঘট, চরম ভোগান্তির আশঙ্কা গ্রাহকদের
সূত্রের খবর, ব্যাঙ্ক ইউনিয়নগুলির দাবি কমপক্ষে ১৫% মজুরি বৃদ্ধির করতে হবে৷ কিন্তু আইবিএ বা ইন্ডিয়ান  ব্যাঙ্ক অ্যাসোসিয়েশন ১২.২৫% পর্যন্ত মজুরি বৃদ্ধিতে রাজি হয়েছে৷ তবে তা মানতে নারাজ কর্মী-অফিসারদের সংগঠনগুলি৷ এদিকে দাবি না মেনে নেওয়া হলে আগামী ১১ থেকে ১৩ মার্চ ফের তিন দিনের ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ডাক দেওয়া হয়েছে৷ এমনকী ১ এপ্রিল থেকে লাগাতার ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের হুমকি দেওয়া হয়েছে, ব্যাংক ইউনিয়নগুলির তরফে৷ অন্যদিকে আজ শনিবার মাসের প্রথম দিন৷ এদিন অনেকেই বেতন, পেনশন তুলতে ব্যাঙ্কে যান৷ ব্যাঙ্ক ধর্মঘটের ফলে তাদের চরম দুর্ভোগে পড়ার সম্ভাবনা রয়েছে।