পত্রলেখা বসু চন্দ্র, বর্ধমান: 'টাকা ধার নিয়ে ফেরত দেয়নি।' অনুব্রত মণ্ডলকে হুমকি দিয়ে গ্রেফতার হওয়ার পর এবার আগ্নেয়াস্ত্র মিলল তৃণমূল নেতা নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়ের বাড়িতে। গুসকরা পুরসভার বিদায়ী কাউন্সিলরকে সঙ্গে নিয়ে শনিবার তাঁর বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিশ। শোওয়ার ঘর থেকে একটি দো'নলা বন্দুক ও একটি পিস্তল পাওয়া গিয়েছে। সঙ্গে দুটি কার্তুজও। লাইসেন্সপ্রাপ্তই শুধু নয়, দুটি আগ্নেয়াস্ত্র লাইন্সেস নিত্যানন্দের নামেই রয়েছে বলে জানা গিয়েছে। আপাতত লাইসেন্স দুটি বাজেয়াপ্ত করেছেন তদন্তকারীরা। 

আরও পড়ুন: বিজেপির সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি মুকুল, দায়িত্ব পেয়েই মুখ খুললেন কৃষি বিল নিয়ে

স্রেফ বিদায়ী কাউন্সিলরই নন, বর্ধমানের গুসকরা এলাকায় দাপুটে তৃণমূল নেতা হিসেবে পরিচিত নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায়। দীর্ঘ রাজনৈতিক বিতর্কেও জড়িয়েছেন বহুবার। নিত্যানন্দের দাবি, স্ত্রীর অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে তাঁর কাছ থেকে কুড়ি লক্ষ টাকা ধার নিয়েছিলেন অনুব্রত মণ্ডল। কয়েক মাসের মধ্য়ে শোধ করার কথা থাকলেও, সেই টাকা আর দেননি তিনি। টাকা আদায়ের জন্য অনুব্রতকে ফোন কি প্রাণনাশের হুমকিও দিয়েছেন? হুমকি ফোনের অডিও ভাইরাল হয়ে গিয়েছে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সেই অডিও রেকর্ডিং-এর ভিত্তিতে বিদায়ী কাউন্সিলর নিত্যানন্দ চট্টোপাধ্যায় বিরুদ্ধে মঙ্গলবার অভিযোগ দায়ের করেন গুসকরারই বাসিন্দা ও তৃণমূল কর্মী শেখ সুজাউদ্দিন। সেদিন অভিযুক্তকে গ্রেফতার করে পুলিশ। প্রথমে জেল হেফাজত, তারপর ধৃতকে চারদিনের পুলিশি হেফাজতের নির্দেশ দেয় আদালত।

আরও পড়ুন: রাজনৈতিক সংঘর্ষে উত্তপ্ত ময়না, অভিযুক্তদের খুঁজতে গিয়ে উদ্ধার প্রচুর বোমা

গুসকরা পুরসভার ১০ নম্বর ওয়ার্ডে বাড়ি নিত্যানন্দের। শনিবার দুপুরে যখন তাঁকে নিয়ে বাড়ি হাজির হয় পুলিশ, তখন কান্নায় ভেঙে পড়েন স্ত্রী স্বপ্না। এরপর সরাসরি পুলিশকর্মীরা জানতে চান, আগ্নেয়াস্ত্র কোথায়? তৃণমূলের বিদায়ী কাউন্সিলর জানান, আলমারির লকারে পিস্তল ও দেওয়াল আলমারিতে দো'নলা বন্দুক আছে। এরপর যথারীতি দুটি আগ্নেয়াস্ত্রই ও লাইসেন্স বাজেয়াপ্ত করা হয়।