Asianet News BanglaAsianet News Bangla

Business News- সাবধান, দেশ জুড়ে ৬০০ টিরও বেশি রয়েছে Fake Loan APP জানাল RBI

Fake Loan APP ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। RBI-এর মতে, বর্তমানে ভারতে প্রায় ৬০০টিরও বেশি Fake Loan অ্যাপ চলছে। জেনে নি কিভাবে এই ফাঁদের থেকে বাঁচতে পারবেন।

Beware RBI said across the country there are more than 600 Fake Loan APPs BDD
Author
Kolkata, First Published Nov 21, 2021, 4:55 PM IST
  • Facebook
  • Twitter
  • Whatsapp

গত বছর করোনার কারণে লকডাউনের সময়, চাকরি ছাঁটাই এবং বেতন কমে যাওয়ার ফলে বহু মানুষ অর্থনৈতিক সংকট নিয়ে এখনও ভুগছে। এর সুযোগ নিয়ে অনেক চিনা ও ভারতীয় সংস্থা ভারতে প্রতারণামূলকভাবে Loan দেওয়ার নামে ফাঁদ পেতেছে। এই ফাঁদে পা দিয়েছে হাজার হাজার মানুষ। উচ্চমাত্রার লোনের টাকা শোধের চাপের সমস্যায় পড়ে প্রাণও দিয়েছেন অনেকে। বিষয়টি বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে, RBI এবং গুগল কঠোরভাবে প্লে স্টোর থেকে এই জাতীয় Fake APP-গুলিকে অনেকাংশে সরিয়েও দিয়েছে। তবে আবারও সেই একই Fake Loan APP ছড়িয়ে পড়তে শুরু করেছে। RBI-এর মতে, বর্তমানে ভারতে প্রায় ৬০০টিরও বেশি Fake Loan অ্যাপ চলছে। জেনে নি কিভাবে এই ফাঁদের থেকে বাঁচতে পারবেন।
রিজার্ভ ব্যাঙ্ক অফ ইন্ডিয়ার (RBI) ওয়ার্কিং গ্রুপ ডিজিটাল লেনদেন সংক্রান্ত রিপোর্ট দিয়েছে। ভারতে আবারও প্রতারণামূলকভাবে মোবাইল অ্যাপ ও ওয়েবসাইটের মাধ্যমে Loan দেওয়ার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। বর্তমানে প্রায় ৬০০ অবৈধ Loan অ্যাপ রয়েছে। অনেক Loan অ্যাপ APK এর মাধ্যমে পরিচালিত হচ্ছে। RBI অনুসারে, বিভিন্ন প্ল্যাটফর্মে এমন ১১০০ টিরও বেশি অ্যাপ পাওয়া যাবে। Loan, ইনস্ট্যান্ট Loan এবং কুইক Loan কীওয়ার্ডের মাধ্যমে এই অ্যাপগুলি পাওয়া যায়। RBI-এর ওয়ার্কিং কমিটি রিপোর্টে বলেছে যে ২০২০ সালের জানুয়ারি থেকে ২০২১ সালের মার্চের মধ্যে এই ধরনের অ্যাপ সম্পর্কে ২৫৬২ টির মত অভিযোগ পাওয়া গিয়েছে।
এই ধরনের অ্যাপগুলি শুধুমাত্র আধার কার্ড এবং প্যান কার্ড দিয়ে ৫ থেকে ৭ মিনিটের মধ্যে Loan দেয়। একবার আপনি তাদের অ্যাপে আপনার নথি আপলোড করলেই, তারা আপনাকে ৭ দিনের জন্য ৩০০০ থেকে ৫০০০ টাকা Loan অফার করবে। আপনি প্রসেসিং এর জন্য রাজি হওয়ার সঙ্গে সঙ্গে তারা প্রসেসিং ফি এবং অন্যান্য চার্জের নামে প্রায় ১০০০ থেকে ১৫০০ টাকা কেটে নেয়। ৭ দিন পর পুরো টাকা দিতে হবে। 

Beware RBI said across the country there are more than 600 Fake Loan APPs BDD


এই ধরনের অ্যাপে লোনের EMI দেওয়ার সময়ও সমস্যা হয়। আপনার অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হয়েছে, কিন্তু অ্যাপে বকেয়া পেমেন্ট দেখা যাচ্ছে। কারণ তারা বেআইনিভাবে এই অ্যাপগুলো চালায়। তাই তাদের কোনও কাস্টমার কেয়ার নম্বর নেই এবং আপনি চাইলেও কোথাও আপনার অভিযোগ নথিভুক্ত করতে পারবেন না। অন্যদিকে, এই অ্যাপগুলি আপনাকে প্রতিদিন লেট ফি হিসেবে ১০০ থেকে ১৫০ টাকা পর্যন্ত জরিমানা করে। নির্যাতনের ধারা এখানেই থেমে নেই। পুনরুদ্ধারের জন্য, এই লোকেরা আপনার আত্মীয় এবং বন্ধুদের ফোন করে হয়রানি করে। তারা আপনার ছবি পাঠিয়ে প্রতারণার কথা বলে।
তাই Loan নেওয়ার থাকলে চেষ্টা করুন এই ধরণের অ্যাপগুলি এড়িয়ে চলতে। কারণ বেশিরভাগ অ্যাপের রিকভারি প্রক্রিয়াই বেআইনি। যদি Loan নেওয়ার প্রয়োজন হয়, তাহলে সেই অ্যাপের মাধ্যমে চেষ্টা করুন, সেই সংস্থা RBI থেকে আর্থিক লেনদেনের জন্য বৈধ। কোনও মূল্যে অস্বীকৃত সংস্থা থেকে Loan নেবেন না। প্রয়োজনে লোনের জন্য ব্যাঙ্কের সঙ্গে যোগাযোগ করুন।

আরও পড়ুন- পোষাকের কারণ দেখিয়ে স্টেট ব্যাঙ্কে ঢুকতে বাধা গ্রাহককে, ভাইরাল পোস্টের জবাব দিল ব্যাঙ্ক

আরও পড়ুন- মহার্ঘ হচ্ছে জামাকাপড়, জুতো,নতুন বছরে GST বাড়ছে ১২ শতাংশ

আরও পড়ুন- সুরাপ্রেমীদের জন্য সুখবর,ইমর্পোটেড মদের ওপর আবগারি শুল্ক কমাল মহারাষ্ট্র সরকার

"

Follow Us:
Download App:
  • android
  • ios